মেইন ম্যেনু

কলারোয়ায় ভ্যান চালকের পেটে চাকু ঢুকিয়ে দিলো এক যুবক

জুলফিকার আলী, কলারোয়া (সাতক্ষীরা) প্রতিনিধি: সাতক্ষীরার কলারোয়ায় আলমগীর হোসেন (৩৮)নামে এক ভ্যান চালকের পেটে চাকু ঢুকিয়ে দিলো এক সন্ত্রাসী যুবক।

আহত ভ্যান চালক উপজেলার সোনাবাড়ীয়া ইউনিয়নের মাদরা গ্রামের মৃত মোহর আলীর ছেলে।

ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার বেলা ১০টার দিকে উপজেলার চন্দনপুর ইটভাটার কাছে। আহত আলমগীর হোসেনকে কলারোয়া সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। তাৎক্ষনি ভাবে সংবাদ পেয়ে থানা পুলিশ ঘটনা স্থান পরিদর্শন করেছেন।

এঘটনায় কলারোয়া থানায় সন্ত্রাসী আহসান হাবিব স্বপনকে আটকের দাবীতে একটি অভিযোগ দায়ের হয়েছে। ঘটনার বিবরণে ও অভিযোগ সূত্রে জানান-উপজেলার মাদরা গ্রামের ভ্যান চালক আলমগীর হোসেন ভ্যান যোগে সোনাবাড়ীয়া ইটভাটার কাছে পৌছালে উপজেলার শ্রীরামপুর গ্রামের রবিউল ইসলামের ছেলে আহসান হাবিব স্বপন(৩২) দ্রুত গতিতে তার ভ্যানে ধাক্কা খায়। পরে কথাকাটাকাটির এক পর্যায়ে আহসান হাবিব স্বপন ক্ষিপ্ত হয়ে তার মোটরসাইকের ব্যাগে থাকা চাকু নিয়ে ভ্যান চালক আলমগীর হোসেনের পেটে ঢুকিয়ে দেয়। পরে পথচারীরা আহত ভ্যান চালককে রাস্তায় পড়ে থাকতে দেখে দ্রুত উদ্ধার করে কলারোয়া সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করেন। এঘটনায় আহত ভ্যান চালকের স্ত্রী নার্গিস খাতুন বাদী হয়ে কলারোয়া থানায় একটি অভিযোগ দিয়েছেন।

এবিষয়ে কলারোয়া থানার অফিসার ইনচার্জ মুনীর-উল-গীয়াস জানান-তিনি খবর পেয়ে ঘটনা স্থানে পুলিশ পাঠিয়েছেন। এদিকে সংবাদ পেয়ে ইউপি সদস্য হাসানুজ্জামান হাসান ও কামরুজ্জামান কামু আহত ভ্যান চালক আলমগীর হোসেনকে হাসপাতালে দেখতে যান এবং তার খোজ খবর নেন।



মন্তব্য চালু নেই