শিরোনাম:

কারাগারে লেখক মুসতাকের মৃত্যু মনাবাধিকার লঙ্ঘন : জাতীয় মানবাধিকার সমিতি

ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় গাজীপুরের কাশিমপুর হাই সিকিউরিটি কেন্দ্রীয় কারাগারে বন্দি লেখক মুসতাক আহমেদের মৃত্যু মানবাধিকার লঙ্ঘন বলে মন্তব্য করে বাংলাদেশ জাতীয় মানবাধিকার সমিতির চেয়ারম্রান মো. মঞ্জুর হোসেন ঈসা, মহাসচিব এডভোকেট সাইফুল ইসলাম সেকুল ও সাংগঠনিক সম্পাদক লায়ন আল আমিন বলেন, অবিলম্বে লেখক মুশতাক হত্যার বিচার করতে হবে। নিরাপত্তা আইন বাতিল করে অবিলম্বে সমস্ত লেখক, কলামিস্ট, ব্লগারসহ যাদেরকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আটক করা হয়েছে তাদের মুক্তি দিতে হবে।

শুক্রবার (২৬ ফেব্রুয়ারি) গণমাধ্যমে প্রেরিত এক বিবৃতিতে নেতৃবৃন্দ লেখক মুসতাকের মৃত্যুতে গভীর শোক ও দু:খ প্রকাশ এবং শোকসন্তপ্ত পরিবারের প্রতি সমবেদনা জ্ঞাপন করে বলেন, যে দেশে লিখে জেলখানায় মরতে হয়। চাপাতির কোপে মস্তক বিচ্ছিন্ন হয়। সে দেশে মানবাধিকার প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়ে।

নেতৃবৃন্দ বলেন, ফাঁসির দণ্ডপ্রাপ্ত আসামিরা দেশ থেকে পালিয়ে যায়, তারা জামিনে মুক্ত হয়, অথচ সামান্য লেখার জন্য, কথা বলার জন্য, সমালোচনা করার জন্য লেখক মুশতাককে কারাগারে মরতে হয়। অসুস্থ থাকার পরও জামিন পায় না, সেখানে আইনের শাসন প্রশ্নবিদ্ধ।



মন্তব্য চালু নেই