প্রধান ম্যেনু

কারাবন্দীদের ঈদ করতে দেয়নি ইসরাইল

ফিলিস্তিনের শত সহস্র শিশু কিশোর ও যুবক ইসরাইলের কারাগারে বন্দি। এবারের ঈদ-উল-ফিতরের দিন তাদের ঈদ উদযাপনও করতে দেয়নি ইসরাইল কারাকর্তৃপক্ষ। কারাগারে তারা বন্দিদের ওপর নির্যাতনের মাত্রাও বাড়িয়ে দিয়েছে। খবর মিডল ইস্ট মিরর।

ফিলিস্তিনের কারাগার বিষয়ক কমিশনের চেয়ারম্যান মেজর জেনারেল কাদরি আবু বকর ফিলিস্তিনের বন্দিদের ওপর ইসরাইল কারা কর্তৃপক্ষের নির্যাতনের নিন্দা জানিয়েছেন।

তিনি বলেন, ফিলিস্তিনি বন্দিদের ওপর নির্যাতনের মাত্রা বেড়েই চলেছে। অত্যাচার নির্যাতন তাদের জীবনকে দুর্বিষহ করে তুলেছে। এমনকি ফিলিস্তিনের মুসলিম বন্দিদেরকে তাদের প্রধান ধর্মীয় উৎসব ঈদ-উল-ফিতরও উদযাপন করতে দেয়া হয়নি।

গত ৭ জনু দেয়া এক বিবৃতিতে জানান, ‘ইসরাইলের কারাগারে ফিলিস্তিনি বন্দিদের ইচ্ছামাফিক অত্যাচার নির্যাতনে তাদের জীবনকে দুর্বিষহ করে তুলেছে। বন্দি ও বন্দিদের পরিবার-পরিজনের সঙ্গে খারাপ আচরণ তাদের রাজনৈতিক প্রতিযোগিতায় ফায়েদা তোলার হাতিয়ার হয়ে দাঁড়িয়েছে।

ফিলিস্তিনের বিভিন্ন কারাগারে ধারাবাহিকভাবে রুটিনমাফিক ফিলিস্তিনি বন্দিদের নির্যাতন করা হচ্ছে। কারাবন্দিরা যেন স্থিরভাবে জীবনযাপন করতে না পারে সে জন্য তাদেরকে ঘন ঘন বিভিন্ন জেলে স্থানান্তর করা হচ্ছে।

কোনো কারাগারে তাদেরকে স্থিতিশীল করতে চায় ইসরাইল কারা কর্তৃপক্ষ। সর্বোপরি ইসরাইলের অ্যাশকেলন কারাগারে নির্দেশনা জারি করে পবিত্র ঈদ-উল-ফিতর উদযাপন বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে।

ফিলিস্তিনি বন্দিদের ওপর নির্যাতনের পাশাপাশি ঈদ-উল-ফিতর উদযাপন বন্ধের এ নির্দেশনা সব বর্বরতাকেই হার মানিয়েছে ইসরাইল।

দীর্ঘদিন ধরে ইসরাইলের কারাগারে আটক নিরাপরাদ ফিলিস্তিনিদের মুক্তির দাবিতে জেরুজালেমে বিক্ষোভ করে আসছে তাদের আত্মীয়-স্বজন। আত্মীয়-স্বজনদের এ দাবিতেও সাড়া দিচ্ছে না ইসরাইল।



মন্তব্য চালু নেই