কাশ্মীরের কারফিউ বাতিলের আহ্বান ওআইসি’র

ভারতকে কাশ্মীরে চলমান ১২ দিনের কারফিউ তুলে নেওয়ার আহ্ববান জানিয়েছে অরগানাইজেশন অব ইসলামিক কো-অপারেশন (ওআইসি)।

এসময় সংস্থাটি কাশ্মীরিদের জনজীবন স্থবির হয়ে গেছে বলেও মন্তব্য করেন।

পাকিস্তানে পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মোহাম্মদ কোরেশি এক ভিডিও বার্তার মাধ্যমে ওআইসির এ সিদ্ধান্তের কথা জানান।

এ সময় কোরেশি বলেন, ওআইসির পক্ষ থেকে ভারতের কাছে কাশ্মীর নিয়ে যে আহ্বান করা হয়েছে তা পাকিস্তানের জন্য একটি কূটনৈতিক বিজয়।

কোরেশি জানান, তিনি সম্প্রতি জেদ্দাতে অনুষ্ঠিত ওআইসির এক সভায় উপস্থিত ছিলেন এবং সেখানে তিনি কাশ্মীর নিয়ে আলোচনা করেন। ফলে ওআইসির পক্ষ থেকে এ আহ্বান আসল।

তিনি বলেন, কাশ্মীরে কারফিউর কারণে সেখানকার জনগণ প্রর্যাপ্ত খাদ্য এবং ওষধ পাচ্ছেন না। এমনকি তারা যথাসময়ে হাসপাতালে পৌঁছতে পারছে না।

কোরেশি জানান, ভারতের এই কারফিউর কারণে জম্মু-কাশ্মীরের মুসলমানরা তাদের ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আযহা যথাযথভাবে আদায় করতে পারেনি। তাদের ধর্মীয় অধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে।

এমতাবস্থায় ওআইসি ভারতের কাছে কাশ্মীরের মুসলমানদের অধিকার সংরক্ষন এবং কোনো বাঁধা ছাড়াই তাদের ধর্মীয় উৎসব পালন করতে দেওয়ার আহ্বান জানিয়েছেন।

এদিকে কাম্মীর ইস্যু নিয়ে পাকিস্তান-ভারত উত্তেজনার মধ্যেই শুক্রবার পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান যুক্তরাষ্ট্রের প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে ফোন করেন।

উল্লেখ্য, গত সোমবার (৫ আগস্ট) কাশ্মীরকে দেওয়া বিশেষ মর্যাদা বাতিল করে ভারত সরকার। এজন্য তারা সংবিধানের ৩৭০ ও ৩৫-এ ধারা বাতিল করে।

তথ্যসূত্র: ডন



মন্তব্য চালু নেই