কুমিল্লায় পৌঁছেছে করোনা ভাইরাসের ২ লাখ ৮৮ হাজার ডোজ ভ্যাকসিন

দেশের বিভিন্ন জেলার মতো অবশেষে কুমিল্লাতেও পৌঁছেছে করোনাভাইরাসের টিকা বা ভ্যাকসিন।

বেক্সিমকো ফার্মাসিউটিক্যালসের বিশেষ পিকআপ ভ্যান রোববার ভোরে ভ্যাকসিন নিয়ে কুমিল্লার সিভিল সার্জন কার্যালয়ে পৌঁছায়।

সিভিল সার্জন কার্যালয়ের কোল্ড স্টোরেজে সেগুলো রাখা হবে বলে জানান জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু সাইদ।

সিভিল সার্জন নিয়াতুজ্জামান জানান, কুমিল্লা জেলার জন্য ১ লাখ ৩৪ হাজার ১২৫ জনের জন্য টিকার চাহিদা উত্থাপন করা হয়। জনপ্রতি দুটি করে ২ লাখ ৮৮ হাজার ডোজ টিকা চাওয়া হয়। চাহিদা অনুযায়ী ১২০০ ভায়ালের (প্রতি ভায়ালে ১০ ডোজ) ২৪ কার্টন টিকা এসেছে জেলায়।

নিয়াতুজ্জামান বলেন, ‘খুবই ভালো লাগছে যে আমরা আমাদের চাহিদা মতো ভ্যাকসিন পেয়েছি। পূর্ণ নিরাপত্তায় রোববার ভোরে আমরা ভ্যাকসিনগুলো গ্রহণ করেছি।

‘এ সময় জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আবু সাঈদসহ ভ্যাকসিন রিসিভ কমিটির সবাই উপস্থিত ছিলেন।’

সিভিল সার্জন জানান, আপাতত জেলা সদর হাসপাতাল, কুমিল্লা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতাল, সিএমএইচ, উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স ও সিটি করপোরেশনের জন্য নগর স্বাস্থ্য কেন্দ্রে টিকা দেয়ার বুথ বসানো হবে।

টিকা দেয়ার জন্য আজ থেকেই উপজেলা স্বাস্থ্য কর্মকর্তা এবং এরপর পর্যায়ক্রমে নার্স ও কমিউনিটি মেডিক্যাল অফিসারদের প্রশিক্ষণ দেয়া হবে। এর মধ্যেই শুরু হবে টিকাদান কার্যক্রম।

প্রথম ধাপে প্রয়োগের জন্য গত ২৫ জানুয়ারি ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউটের পাঠানো ৫০ লাখ টিকা দেশে আসে। এর আগে ভারত সরকারের দেয়া ২০ লাখ টিকা আসে উপহার হিসেবে।



মন্তব্য চালু নেই