মেইন ম্যেনু

ক্যাসিনোতে বিএনপির অনেক নেতাকর্মী জড়িত : হানিফ

ঢাকায় ক্লাবগুলোতে যে ক্যাসিনো বা জুয়া খেলার অস্তিত্ব পাওয়া গেছে সেগুলোর সঙ্গে যুবলীগ ছাড়াও বিএনপির অনেক নেতাকর্মী জড়িত আছে বলে অভিযোগ করেছেন আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুবউল আলম হানিফ।

মঙ্গলবার দুপুরে সুনামগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় যোগদানের আগে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ অভিযোগ করেন। হানিফ বলেন, ‘ক্যাসিনোতে যুবলীগ ছাড়াও বিএনপির অনেক নেতাকর্মী জড়িত আছে। বিএনপির মির্জা আব্বাস, সাদেক হোসেন খোকা, মোসাদ্দেক হোসেন ফালু- তাদের সরকারের সময় থেকে ক্লাবে জুয়ার প্রচলন শুরু হয়েছে। ‘

তিনি বলেন, ‘যুবলীগ নেতা ইসমাইল চৌধুরী সম্রাটকে আইনের আওতায় এনে বিচার করা হবে। অপরাধীর কোনো দল নেই। জননেত্রী শেখ হাসিনা যে কোনো ধরনের অন্যায়, দুর্নীতির বিরুদ্ধে কঠোর অবস্থানে আছেন। সেটা যুবলীগ হোক, আওয়ামী লীগ হোক আর ছাত্রলীগ হোক বা অন্য দলের হোক।‘

হানিফ বলেন, যে দুর্নীতিবাজ সে সমাজের চোখে অপরাধী। অপরাধীর কোনো দল নেই। যে সন্ত্রাসী সে সমাজের চোখে অপরাধী। এ ধরনের অপরাধীদের চিহ্নিত করা হচ্ছে এবং যাদের বিরুদ্ধে সুর্নিদিষ্ট অভিযোগ প্রমাণিত হবে তাদের বিরুদ্ধে কঠোর আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে। অপরাধী, সে যেখানেই থাকুক না কেন তাকে ধরা পড়তেই হবে। তাকে আইনের আওতায় এনে বিচার করা হবে।

হানিফ আরও বলেন, সম্প্রতি ঢাকায় ক্লাবগুলোতে যে ক্যাসিনো বা জুয়া খেলার সরঞ্জাম উদ্ধার হয়েছে এটি রাজনৈতিক নয়, ক্লাবভিত্তিক অনিয়ম সংগঠিত হয়েছে। ক্যাসিনো হচ্ছে জুয়ার আসর। এর সঙ্গে ক্লাব জড়িত। এর সঙ্গে কোনো রাজনৈতিক দল জড়িত না। কিন্তু দুর্ভাগ্যজনকভাবে এটাকে দলের উপর চাপানো হচ্ছে। যুবলীগের ২/১ জন নেতা এর সঙ্গে জড়িত থাকতে পারে। কিন্তু এটা তো পুরো যুবলীগের কোনো বিষয় না এটা ক্লাবের বিষয়।

আওয়ামী লীগ নেতা বলেন, আমাদের সমাজ থেকে সব ধরনের অনিয়ম-দুর্নীতি উচ্ছেদ ও দমন করাই আমাদের মূল লক্ষ্য। আমরা সেটিই করে যাচ্ছি। ঢাকা শহরে ইতিমধ্যে কয়েকটি ক্লাবের অস্তিত্ব পাওয়া গেছে, সেগুলোকে কঠোরভাবে দমন করা হয়েছে এবং এর সঙ্গে জড়িতদের আইনের আওতায় আনা হয়েছে। ঢাকার বাইরে যদি এমন খবর পাওয়া যায় তাহলে তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেয়া হবে।

এ সময় আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য নুরুল ইসলাম নাহিদ, কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ উপস্থিত ছিলেন।

পরে জেলা আওয়ামী লীগের প্রতিনিধি সভায় যোগ দেন হানিফ। জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মতিউর রহমানের সভাপতিত্বে ও সাধারণ সম্পাদক ব্যারিস্টার এম এনামুল কবির ইমনের পরিচালনায় এতে প্রধান অতিথি ছিলেন আওয়ামী লীগের সভাপতিমণ্ডলীর সদস্য ও সাবেক শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

এতে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মিসবাহ উদ্দিন সিরাজ, সংসদ সদস্য মুহিবুর রহমান মানিক, জয়া সেন গুপ্তা, মোয়াজ্জেম হোসেন রতন, অ্যাডভোকেট শামীমা শাহরিয়ার, জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি ও জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান নুরুল হুদা মুকুট, সহ-সভাপতি ছিদ্দিক আহমদসহ দলীয় নেতারা।



মন্তব্য চালু নেই