মেইন ম্যেনু

খালেদাকে একবার এসে দেখে যান, প্রধানমন্ত্রীকে বিএনপি

বিএনপির অসুস্থ চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করে তার জামিনে মুক্তির জন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে পদক্ষেপ নিতে বুধবার অনুরোধ জানিয়েছেন দলটির সংসদ সদস্যরা।

বিএনপির সংসদ সদস্য জিএম সিরাজ বলেন, ‘আমরা সাতজন এমপি সংসদ নেতা মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে অনুরোধ জানাচ্ছি, আপনি নিজে একবার এসে খালেদা জিয়াকে দেখে যান। আমাদের তিনবারের প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়াকে দেখে আপনার মানবিকতাবোধ জাগ্রত হবে, আপনার তার জন্য মায়া হবে।’

তিনি আরও বলেন, আমাদের নেত্রী (খালেদা) একজন ‘রাজনৈতিক বন্দি’ এবং তার মুক্তির জন্য রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত প্রয়োজন। ‘প্রধানমন্ত্রীর কাছে আমাদের অনুরোধ, আপনি আমাদের নেত্রীর জামিনের জন্য পদক্ষেপ গ্রহণ করুন। আপনি আমলাতান্ত্রিক পরামর্শ না নিয়ে দয়া করে রাজনৈতিক দূরদর্শিতায় আমাদের নেত্রীকে ছেড়ে দিন, জামিনের ব্যবস্থা করে দিন।’

বিকালে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ে (বিএসএমএমইউ) নিজ দলের আরও তিন সংসদ সদস্যকে নিয়ে খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করার পর সাংবাদিকদের এসব কথা বলেন জিএম সিরাজ।

বিকাল সোয়া ৩টার দিকে বঙ্গবন্ধু শেষ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় (বিএসএমএমইউ) হাসপাতালে চিকিৎসাধীন বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়াকে দেখতে যান দলটির চার সাংসদ জিএম সিরাজ, মো. মোশাররফ হোসেন, মো. জাহিদুর রহমান জাহিদ ও রুমিন ফারহানা। তারা এক ঘণ্টা খালেদা জিয়ার কেবিনে ছিলেন।

এর আগে গত মঙ্গলবার (বিএসএমএমইউ) বিএনপির আরও তিন সংসদ সদস্য খালেদা জিয়ার সঙ্গে দেখা করেন। বিএনপির কারাবন্দী চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া জামিন পেলে চিকিৎসার জন্য বিদেশে যেতে রাজি বলে মঙ্গলবার জানান দলটির সংসদ সদস্য হারুনুর রশীদ।

বিএনপির এ নেতা বলেন, ‘ওনার (খালেদা) অসুখের জন্য অবিলম্বে বিদেশে বিশেষায়িত হাসপাতালে উন্নত চিকিৎসা দরকার। তাকে জামিন পাওয়ার অধিকার থেকে বঞ্চিত না করার জন্য আমি সরকারের প্রতি আহ্বান জানাই। তিনি চিকিৎসার সুযোগ পেলে অবশ্যই বিদেশে যাবেন। তিনি আজ জামিন পেলে, কাল বিদেশ যাবেন।’

দুর্নীতির দুই মামলায় সাজাপ্রাপ্ত সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়া গত বছরের ৮ ফেব্রুয়ারি থেকে কারাবন্দী রয়েছেন। গত ১ এপ্রিল থেকে তিনি বিএসএমএমইউতে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।



মন্তব্য চালু নেই