শিরোনাম:

খুলনার কয়রায় শিক্ষকের বাড়িতে ৩ লক্ষাধিক টাকার সম্পদ লুট

খুলনার কয়রা উপজেলায় খাদ্যে চেতনা নাশক ওষুধ মিশিয়ে মাদ্রাসার শিক্ষকের বাড়িতে লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে।

এসময় নগদ আড়াই লক্ষ টাকাসহ সাড়ে তিন ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যায় চক্রটি।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) দিবাগত গভীর রাতে উপজেলার বাগালি ইউনিয়নের বগা গ্রামের দুর্গা মন্দির সংলগ্ন শিক্ষক মনোরঞ্জন মন্ডলের পরিবার এ লুটপাটের স্বীকার হয়। মনোরঞ্জন মন্ডল কালনা আমিনিয়া ফাজিল মাদ্রাসার বাংলা বিভাগের শিক্ষক।

ভুক্তভোগী পরিবারের অরুপ মন্ডল বলেন, রাতের খাবার খেয়ে আমার শরীরটা খারাপ লাগছিলো। কিছুক্ষণের মধ্যে ঘুমিয়ে যাই। সকালে ঘুম থেকে জেগে দেখি রাতে দূর্বৃত্তরা দরজা ভেঙে ঘরে ঢুকে আলমারি থেকে নগদ আড়াই লক্ষ টাকা এবং সাড়ে ৩ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে গেছে। ঘুমে অচেতন থাকায় আমরা ঘরের দরজা, আলমারি ভাঙার শব্দ শুনতে পায়নি। সম্ভবত সন্ধ্যায় কে বা কারা গোপনে এসে আমাদের খাবারে চেতনানাশক কিছু মিশিয়ে গভীর রাতে লুটপাট করেছে। তবে এসময় আমাদের কাউকে শারীরিক আঘাত করেনি।’

স্থানীয় ইউপি সদস্য আইয়ুব আলী জানান, সকালে জানতে পারি অচেতন করে ওই পরিবারে লুটপাট করেছে। তবে এখন সকলে সুস্থ আছে।

এবিষয়ে কয়রা থানার ওসি এবিএম দোহা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে বলেন, ‘ঘটনাস্থলে থানা পুলিশের একটি টিম পাঠানো হয়েছে। তদন্ত পূর্বক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।