মেইন ম্যেনু

‘গরু’ শব্দ শুনলে কিছু মানুষের চুল খাড়া হয়ে যায় : মোদি

গরু কিংবা ‘ওম’ শব্দ শুনলে কিছু মানুষের চমকে ওঠাকে দুর্ভাগ্যজনক আখ্যায়িত করে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছেন, ওম এবং গরু কোনো নিষিদ্ধ শব্দ নয় যে উচ্চারণ করলেই দেশ কয়েক যুগ পিছিয়ে যাবে।

বুধবার উত্তরপ্রদেশের মথুরায় জাতীয় পশু রোগ নিয়ন্ত্রণ প্রকল্পের (এনএডিসিপি) উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নিয়ে তিনি এসব কথা বলেন। খবর এনডিটিভি ও আনন্দবাজার পত্রিকার।

কেন্দ্রের গো-রাজনীতি দেশকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। সাম্প্রদায়িকতার প্রশ্নে অনেক সময়ই বিরোধীদের মুখে এই নিন্দা শোনা যায়।

তাদের সমালোচনা করে মোদি বলেন, কিছু মানুষ আছে যদি তারা ‘গরু’ এবং ‘ওম’-এর মতো শব্দ শোনেন, তখন তাদের চুল খাড়া হয়ে যায়। তারা ভাবতে থাকেন দেশ ষোড়শ শতাব্দীতে ফিরে যাচ্ছে। এ ধরনের মানুষরা দেশকে ধ্বংস করে দিচ্ছে। পশুদের ছাড়া গ্রামীণ অর্থনীতির কথা কি কেউ বলতে পারবেন?

মোদি আরও বলেন, পরিবেশ ও প্রাণীকুল ভারতের অর্থনীতিতে সব সময়ই গুরুত্বপূর্ণ। আমরা নতুন ও শক্তিশালী ভারতের দিকে এগুতে পারব যদি প্রকৃতি ও অর্থনৈতিক অগ্রগতির মধ্যে সমন্বয় করতে পারি।

নরেন্দ্র মোদি যখন বক্তৃতা দিচ্ছিলেন, তখন মঞ্চে উপস্থিত ছিলেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।

নতুন এই প্রকল্পে ১২ হাজার ৬৫২ কোটি টাকা বিনিয়োগ করা হবে। ২০২৪ সাল পর্যন্ত বিনা খরচে ৫০ কোটি গবাদি পশুকে টিকা দেয়া হবে। পশুদের বিভিন্ন রোগ থেকে মুক্ত রাখতে এই প্রকল্প শুরু করা হয়েছে বলে জানিয়েছে ভারত সরকার।



মন্তব্য চালু নেই