গলায় আটকালো জ্যান্ত কই মাছ! অতঃপর…

কিশোরগঞ্জের করিমগঞ্জ উপজেলায় পুকুরে মাছ ধরতে গিয়ে জ্যান্ত কই মাছ আটকে গেছে এক তরুণের গলায়।

মঙ্গলবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে।

পরে সন্ধ্যায় প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অস্ত্রোপচার করে মাছটি বের করেন চিকিৎসকেরা।

বর্তমানে ওই তরুণ শঙ্কামুক্ত হলেও নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন।

তার নাম মো. শফিকুল ইসলাম (২০)। তিনি উপজেলার নোয়াবাদ গ্রামের আবদুল মালেকের ছেলে।

স্থানীয় বাসিন্দা ও হাসপাতাল সূত্রে জানা যায়, শফিকুল মঙ্গলবার দুপুরে বাড়ির পাশের বিলে মাছ ধরতে যান। এ সময় তার হাতে একটি কই মাছ ধরা পড়ে।

সেটি না রাখতেই তার পায়ের নিচে আরেকটি মাছ পান। আগের মাছটি মুখে কামড় দিয়ে ধরে পায়ের নিচের মাছটি ধরতে যান তিনি। এ সময় মুখের মাছটি তার গলায় ঢুকে যায়।

স্থানীয় লোকজন শফিকুলকে উদ্ধার করে জাফরাবাদ এলাকায় প্রেসিডেন্ট আবদুল হামিদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করেন।

সেখানে সন্ধ্যার পর অস্ত্রোপচার করে কই মাছটি বের করেন চিকিৎসক।

হাসপাতালটির অধ্যক্ষ আ ন ম নৌশাদ খান বুধবার বলেন, শফিকুল বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন। অবস্থা শঙ্কামুক্ত। তারপরও তাকে নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) বিশেষ নজরদারিতে রাখা হয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই