শিরোনাম:

গাইবান্ধায় বিয়েতে অভিনব প্রতারণা! একই দিনে দুই কনে পক্ষের কাছ থেকে টাকা নিয়ে লাপাত্তা বর

গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে বিয়ের কথা বলে দুই (কনের) পরিবার থেকে যৌতুক বাবদ টাকা নিয়ে লাপাত্তা মেহেদী হাসান গোলাপ নামের এক যুবক।

ঘটনার বিবরণে জানা যায়, পলাশবাড়ী উপজেলার হোসেনপুর ইউনিয়নের দিকদারী গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক আলমগীরের ছেলে মেহেদী হাসান গোলাপ এর সাথে একই দিনে দুই কনের বিয়ের দিন ধার্য করা হয়।

গত বৃহস্পতিবার (৮ ডিসেম্বর) বিয়ের আয়োজন স্বরূপ কেনাকাটা এবং আনুষ্ঠানিকতা শুরু করেন কনে পক্ষদ্বয়।

গোবিন্দগঞ্জের ফুলহারে বিয়ে ঠিক করে, ছেলের মা, বাবা, ভাই বোন সহ মোট চার জনের উপস্থিতিতে ছেলে পক্ষ বিয়ের খরচ বাবদ তিন লক্ষ টাকা বুঝে নেয়। বিয়ের দিন বর পক্ষ যথা সময়ে উপস্থিত না হলে এক কনের বড় ভাই বরের বাড়িতে গিয়ে জনশূন্য দেখতে পায়। এবং জানতে পারেন যে, বরপক্ষ পলাশবাড়ী পৌরসভার ৭ নং ওয়ার্ডের অন্য আরেক কনে পক্ষের কাছ থেকে একই দিনে বিয়ের কথা বলে নগদ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।

বিয়ের দিনে এসে এমন ঘটনা জানতে পেরে কনে পক্ষের পরিবারসহ এলাকাবাসীর মাঝে ক্ষোভ ও নিন্দার সৃষ্টি হয়, সেই সাথে প্রতারকদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি করেছেন সচেতন মহল।