শিরোনাম:

গাজীপুরের টঙ্গীতে এইচএসসি পরীক্ষার উত্তরপত্র গায়েব, দুই পরিদর্শক বরখাস্ত

গাজীপুরের টঙ্গীতে এইচএসসি পরীক্ষার কেন্দ্র থেকে শিক্ষার্থীর উত্তরপত্র খোয়া যাওয়ার ঘটনায় দুই কক্ষ পরিদর্শককে দায়িত্ব থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা করেছে কর্তৃপক্ষ। বৃহস্পতিবার (২৪ নভেম্বর) ওই পরীক্ষা কেন্দ্র থেকে একটি উত্তরপত্র খোয়া যায়।

কেন্দ্র সূত্রে জানা যায়, টঙ্গী সাহাজ উদ্দিন সরকার স্কুল এণ্ড কলেজ থেকে পরীক্ষায় অংশ নেন ইমন। বৃহস্পতিবার তার রসায়ন দ্বিতীয় পত্রের পরীক্ষা ছিল। পরীক্ষা শেষে উত্তরপত্র গণনায় একটি কম পাওয়া যায়।

পরে সেটি খুঁজে না পেয়ে ওই উত্তরপত্রের পরীক্ষার্থীকে নগরের গাছা থানার বগারটেক এলাকার বাসা থেকে ডেকে কেন্দ্রে নিয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। জিজ্ঞাসাবাদে সে উত্তরপত্র পরীক্ষা হলে জমা দিয়েছে বলে জানায়।

কিন্তু এরপরও সন্দেহভাজন হিসেবে তাকে কেন্দ্রে কয়েক ঘণ্টা আটকে রাখা হয়। পরে তার কলেজের শিক্ষকরা কেন্দ্রে গিয়ে তাকে ছাড়িয়ে আনেন।

এ ব্যাপারে টঙ্গী পাইলট স্কুল এণ্ড গার্লস কলেজের অধ্যক্ষ ও কেন্দ্র সচিব মো. আলাউদ্দিন মিয়া জানান, তার কেন্দ্রে মোট পরীক্ষার্থীর সংখ্যা ৭৮০ জন। বৃহস্পতিবার পরীক্ষা শেষে লিখিত পরীক্ষার উত্তরপত্র গণনায় মোট ৭৭৯টি পাওয়া যায়। একটি কক্ষে ৫২ জন পরীক্ষার্থীর মধ্যে পরীক্ষা শেষে ৫১টি উত্তরপত্র পাওয়া যায়।

পরে খোয়া যাওয়া উত্তরপত্রের পরীক্ষার্থী ও তার অভিভাবককে বাড়ি থেকে খবর দিয়ে এনে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। সে উত্তরপত্র বাইরে নিয়েছে কিনা জিজ্ঞাসা করা হলে অস্বীকার করে এবং পরীক্ষা শেষে যথানিয়মে উত্তরপত্র জমা দিয়েই কেন্দ্র ত্যাগ করেছে বলে জানায়। ঘটনাটি শিক্ষাবোর্ডকে অবহিত করা হয়েছে।

এ বিষয়ে গাজীপুর জেলা শিক্ষা কর্মকর্তা রেবেকা সুলতানা জানান, উত্তরপত্র খোয়া যাওয়ার ঘটনায় ওই পরীক্ষা কেন্দ্রের দুই পরিদর্শক আতিউর রহমান ও মনিরা খানমকে কারণ দর্শানোর নোটিশের পাশাপাশি পরিদর্শকের দায়িত্ব পালন থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে এবং কক্ষ পরিদর্শকের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে।

তিনি আরও বলেন, খোয়া যাওয়া উত্তরপত্র এবং দুই পরিদর্শকের বিষয়ে শিক্ষা বোর্ড পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেবে। এ বিষয়ে ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের কর্মকর্তাদেরকে বিস্তারিত জানানো হয়েছে।