শিরোনাম:

জীবনের নিরাপত্তা ও হামলার বিচার চেয়ে

গোপালগঞ্জের বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

গোপালগঞ্জের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় ও শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের সংঘর্ষের ঘটনায় মানববন্ধন করে বশেমুরবিপ্রবির সাধারন শিক্ষার্থীরা।

মঙ্গলবার দুপুর ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের মেইন গেইটের সামনে জীবনের নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণ এবং শেখ সায়েরা খাতুন মেডিকেল কলেজের কিছু বিপদগামী শিক্ষার্থী কর্তৃক বশেমুরবিপ্রবি শিক্ষার্থীদের উপর অতর্কিত হামলা ও শিক্ষকদের সাথে অসদাচরণের বিচারের দাবিতে মানববন্ধন করেন তারা।

মানববন্ধনে বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার্থীরা জানান, ক্রিকেট খেলাকে কেন্দ্র করে হওয়া ঘটনাকে মেডিকেল কর্তৃপক্ষ ইভটিজিং বলে মিথ্যাচার করে। মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীদের হামলায় বশেমুরবিপ্রবি’র সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগের সায়েমসহ অর্ধশতাধিক শিক্ষার্থী আহত হয় যাদের পরবর্তীতে হাসপাতালে নেওয়া হলে চিকিৎসা না পাওয়ার অভিযোগও করেন মানববন্ধনরত শিক্ষার্থীরা। তারা আরো বলেন, প্রথম দফায় হওয়া সংঘর্ষের পরে বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকরা সমাধানের জন্য গেলেও মেডিকেল কলেজের শিক্ষার্থীরা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষকদের সাথে অসদাচরণ করেন।

উল্লেখ্য, গত ২১ নভেম্বর রবিবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে ক্রিকেট খেলা কে কেন্দ্র করে সংঘর্ষের সূত্রপাত হয়। তারপর রাত ১টা অবদি চলে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া। এ ঘটনায় বশেমুরবিপ্রবি’র প্রায় অর্ধশত শিক্ষার্থী আহত হয়।