শিরোনাম:

চট্টগ্রামে ভাড়া না দেয়ায় বের করে দিল বাড়িওয়ালা, এগিয়ে এল পুলিশ

কঠোর লকডাউনের আগে হারিয়েছেন অস্থায়ীভাবে নিয়োগ পাওয়া চাকরি। করোনাকালে চলে না অন্যান্য কাজ। সব মিলিয়ে থমকে গেছে স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। এরই মধ্যে জমে গেছে তিনমাসের বাড়ি বাড়া। পরে পরিশোধের কথায়ও মানতে নারাজ বাড়িওয়ালা। তাড়িয়ে দিলেন করোনার এই কঠিন সময়ে।

এমন অমানবিক ঘটনা ঘটেছে চট্টগ্রামের লালখান বাজারের দুবাই কলোনিতে। এই ঘটনায় গতকাল (বৃহস্পতিবার) সকাল ১০টা থেকে শুক্রবার (১৬ এপ্রিল) দুপুর ১২টা পর্যন্ত ফুটপাতে কাটাতে হয় একটি পরিবারটিকে।

পরে পরিবারটির ছবি তুলে ফেসবুকে পোস্ট করে এক ব্যক্তি। কিছুক্ষণ পরে ভাইরাল হয় স্ট্যাটাসটি। এভাবে বিষয়টি নজরে আসে চট্টগ্রাম মেট্রোপলিটন পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার (উত্তর) আবু বকর সিদ্দিকের। সঙ্গে সঙ্গে ব্যবস্থা নেন তিনি। পুলিশ পাঠিয়ে বাড়িওয়ালাকে বুঝিয়ে ওই পরিবারকে তুলে দেন বাসায়।

ঘটনার বিষয়ে ওই পরিবারের সদস্য শ্রীধাম বলেন, আমার ভাই ওয়াসায় অস্থায়ী চাকরি করত। কয়েকদিন আগে তার চাকরির মেয়াদ শেষ হয়ে গেছে। আবার তিনি বাড়িওয়ালাকে মোটর বসিয়ে দেয়ার কথা বলে ৩০ হাজার টাকা নেন। সেই টাকা ওয়াসা কর্মকর্তাকে দেন তিনি। কিন্তু চাকরির মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ায় কাজটা তিনি করে দিতে পারেননি।

এদিকে গত তিন মাসের বাসা ভাড়াও জমে ছিল। সবমিলিয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে গতকাল বাড়িওয়ালা আমাদের বের করে। পরে পুলিশের হস্তক্ষেপে আমরা বাসায় উঠি।

এ বিষয়ে পুলিশের কর্মকর্তা আবু বকর সিদ্দিক বলেন, করোনাকালে একটি পরিবারকে বাসা ভাড়ার জন্য বের করে দিয়েছে শুনেই ওই এলাকায় পুলিশ পাঠানো হয়। পরে পুলিশ বাড়িওয়ালাকে বুঝিয়ে পরিবারটিকে বাসায় ওঠার ব্যবস্থা করে দেয়।



মন্তব্য চালু নেই