মেইন ম্যেনু

চন্দ্রাভিযান ব্যর্থতার পরও বিজ্ঞানীদের প্রশংসায় মোদি!

ভারতের চন্দ্রযান-২ এর ব্যর্থতার পরও শনিবার সকালে বিজ্ঞানীদের প্রশংসা করলেন দেশটির প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

তিনি বলেন, বিজ্ঞানচর্চায় সেরা সময়ের খুব কাছেই দেশ। বিক্রমের চন্দ্রাবতরণ অনিশ্চিত জেনেও ইসরোর বিজ্ঞানীদের এ ভাষাতেই উৎসাহিত করলেন মোদি। খবর বিবিসি ও এনডিটিভির।

ল্যান্ডার বিক্রমের সঙ্গে ইসরোর গ্রাউন্ড স্টেশনের যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন হওয়ার কয়েক ঘণ্টা পরে জাতির উদ্দেশে ভাষণ দেন নরেন্দ্র মোদি।

সেই ভাষণেই মোদি ভূয়সী প্রশংসা করেন অক্লান্ত পরিশ্রম করে চন্দ্রযান-২ এর যাত্রার সঙ্গে জড়িয়ে থাকা বিজ্ঞানীদের জন্য।

শুক্রবার চরম উদ্বেগের মুহূর্তে বিজ্ঞানীদের পাশেই ছিলেন প্রধানমন্ত্রী। কক্ষচ্যুত হওয়ার পরে গতি কমিয়ে প্রতিটি ধাপ নিপুণভাবে পেরচ্ছিল চন্দ্রযান।

ইতিহাস থেকে সামান্য দূরে দাঁড়িয়ে গোটা ভারত যখন প্রহর গুনছে তখনই ঘটল অঘটন।

চাঁদের পৃষ্ঠ থেকে মাত্র ২.১ কিলোমিটার দূরে থাকা অবস্থায় অরবিটারের সঙ্গে সংযোগ হারায় ল্যান্ডার বিক্রম। অশনি সঙ্কেত পেয়ে খানিকটা থমকে যান বিজ্ঞানীরা।

তখনই দেখা যায় প্রধানমন্ত্রী উদ্বিগ্ন বিজ্ঞানীদের আশ্বস্ত করছেন। রাতেই প্রধানমন্ত্রী টুইট করে বলেন, দেশের বিজ্ঞানীদের নিয়ে আমরা গর্বিত।

আপনার নিজেদের শ্রেষ্ঠটুকু নিংড়ে দিয়েছেন। আমি আপনাদের পাশে সব সময় রয়েছি। একই সময়ে ইসরোর বিবৃতিতে এই অঘটনের কথা জানানো হয়।

মোদি একই ইতিবাচক মনোভাব দেখিয়েছেন শনিবার সকালেও। বিজ্ঞানীদের কর্মদক্ষতাকে স্যালুট করে তিনি বলেন, ‘আপনারা দেশের জন্যে নিরলসভাবে খেটেছেন।

নিজেদের সুখ শান্তির কথা একবারও চিন্তা করেননি। এই শ্রম বৃথা যাবে না। ব্যর্থতা আমাদের পিছিয়ে দেবে না। আজ হয়তো চাঁদে আমাদের অভিযান ব্যর্থ হয়েছে। কিন্তু আশা হারাব না।’



মন্তব্য চালু নেই