মেইন ম্যেনু

চামড়ার দরপতনের তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট

চামড়ার আড়তদার ও ট্যানারী ব্যবসায়ীদের ছল চাতুরির কারনে শত শত কোটি টাকার কোরবানির পশুর চামড়া পঁচে নষ্ট হওয়ার পরো বাকি চামড়া নিয়ে এখনো বন্ধ হয়নি তাদের দ্বন্দ। চামড়ার মৌসুমী ব্যবসায়ী সর্বশান্ত হওয়ার পরো টনক নড়েনি সংশ্লিষ্টদের।

তবে বাজার সামলাতে সরকারের অনুরোধে ট্যানারি মালিকরা কাঁচা চামড়া কেনার প্রস্তুতি নিলেও আড়তদাররা বিক্রি বন্ধ রাখার ঘোষণা দেওয়ায় সঙ্কট নতুন মাত্রা পেয়েছে।

এদিকে চামড়ার দামে অস্বাভাবিক দরপতনের বিষয়ে বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট দায়ের করা হয়েছে। সেই সঙ্গে চামড়ার দামের অস্বাভাবিক দরপতনে বিবাদীদের ব্যর্থতা কেনো অবৈধ ঘোষণা করা হবে না তা জানতে চেয়ে রুল জারির আর্জি জানানো হয়েছে।

রোববার দুপুরে হাইকোর্টের সংশ্লিষ্ট শাখায় রিট দায়ের করেন ব্যারিস্টার মহিউদ্দিন ফরহাদ হানিফ।

উল্লেখ্য, এবারের কোরবানি ঈদে কাঁচা চামড়ার দামে বিগত ৩০ বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ দরপতন হয়। কোরবানির পশুর চামড়া রাস্তায় পচে নষ্ট হয়। অনেক জায়গায় মাটিতে পুঁতে ও নদীতে ফেলা হয় চামড়া। এ নিয়ে দেশজুড়ে শুরু হয় সমালোচনা।



মন্তব্য চালু নেই