প্রধান ম্যেনু

জঙ্গি হামলায় নিহত ফায়ারম্যান মতিনের পরিবার পাবে ১৮ লাখ টাকা

রাজশাহীর গোদাগাড়ী উপজেলার বেনীপুরের জঙ্গি হামলায় নিহত ফায়ার সার্ভিসের কর্মী আবদুল মতিনের পরিবারকে ১৮ লাখ টাকা অনুদান দেবে পুলিশ ও রাজশাহী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স। পুলিশের পক্ষ থেকে রাজশাহী মহানগর পুলিশ কমিশনার (আরএমপি) শফিকুল ইসলাম ও ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পক্ষে উপ-পরিচালক নুরুল ইসলাম এই ঘোষণা দিয়েছেন।

রাজশাহী ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের উপ-পরিচালক নুরুল ইসলাম সাংবাদিকদের বলেন, পুলিশ মহাপরিদর্শকের প্রতিনিধি হিসেবে বৃহস্পতিবার সকালে হাসপাতালে নিহত আবদুল মতিনের লাশ দেখতে যান আরএমপি কমিশনার শফিকুল ইসলাম। এ সময় তিনি নিহত আবদুল মতিনের স্ত্রী তানজিলা বেগমকে জানান, তাকে ১০ লাখ টাকা আর্থিক অনুদান দেবে পুলিশ সদর দপ্তর। ঘটনার পর ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্সের পরিচালক (অপারেশন) একেএম শাকিল নেওয়াজ ঢাকা থেকে রাজশাহী এসেছেন। তিনি নিহতের পরিবারকে ব্যক্তিগতভাবে ১০ হাজার টাকা দিয়েছেন। আবদুল মতিনের দাফনের জন্য বিভাগ আরও ১০ হাজার টাকা দিয়েছে। আর কর্মরত অবস্থায় মৃত্যু হওয়ায় আবদুল মতিনের পরিবারকে ফায়ার সার্ভিসের পক্ষ থেকে ৮ লাখ টাকা পাবে।

এছাড়া অধিদপ্তরের মহাপরিচালক কল্যাণ তহবিল থেকে আবদুল মতিনের পরিবারকে আর্থিক সহায়তা করবেন বলেও জানান তিনি।

উল্লেখ্য, বৃহস্পতিবার সকালে গোদাগাড়ীর হাবাসপুর মাছমারা বেনিপুর জঙ্গি আস্তানায় অভিযান চালায় পুলিশ। জঙ্গিদের ওই বাড়িটিতে পানি স্প্রে করার জন্য ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরাও যোগ দেন। এ সময় বাড়ি থেকে বেরিয়ে জঙ্গিরা পুলিশ ও ফায়ার সার্ভিসের কর্মীদের ওপর হামলা চালায়। এতে নিহত হন ফায়ার সার্ভিসের কর্মী আবদুল মতিন।

নিহত মতিন একই উপজেলার মাটিকাটা ভাটা গ্রামের মৃত এহসান আলীর ছেলে।



মন্তব্য চালু নেই