জনসম্মুখে ধূমপান নিষিদ্ধ করেছে তুরস্ক আন্তর্জাতিক

জনসম্মুখে ধূমপান নিষিদ্ধ করেছে তুরস্ক সরকার। সম্প্রতি করোনা রোগীর সংখ্যা বৃদ্ধি পাওয়ায় নাগরিকদের সুরক্ষার কথা বিবেচনা করে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন তুর্কি স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলাইমান সয়লু। আজ দেশটির স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এক আদেশে এ কথা জানান।

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুলাইমান সয়লু বলেন, ‘নাগরিকরা যাতে যথাযথভাবে মাস্ক পরিধান করতে পারে সেজন্য আগামীকাল (১২ নভেম্বর) থেকে যেখানে জনসমাগম থাকে এমন জায়গা যেমন- রাস্তা, গণপরিবহন, চত্বরে ধুমপানের ওপর নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।’

এর আগে দেশটির স্বাস্থ্যমন্ত্রী ফখরুদ্দীন কোজা নাগরিকদেরকে সবসময় মাস্ক করা ও সামাজিক দুরত্ব নিশ্চিতের ব্যাপারে আহ্বান জানিয়েছিলেন। কোজা এক টুইটে বলেছিলেন, ‘আমি কেবল আপনারা যা করতে পারেন সেটা করতে বলছি এর বেশি কিছু না।’

কয়েকদিন আগে দেশটির রাজধানী আঙ্কারা, ইস্তানবুলসহ কিছু কিছু প্রদেশে সিনিয়র সিটিজেনদের ওপর আংশিক লকডাউন জারি করে বলা হয়, ৬৫ বছরের বেশি বয়সী সকল নাগরিকের সকাল ১০টা থেকে বিকেল ৪টা পর্যন্ত বাহিরে না যাওয়ার আহ্বান জানানো হচ্ছে।

গত সপ্তাহে দেশটির প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব রেঁস্তোরা, ক্যাফে, সিনেমাহলসহ সব ধরনের ব্যবসায়িক-বাণিজ্যিক প্রতিষ্ঠান রাত ১০টার মধ্যে বন্ধের আদেশ দিয়েছিলেন। দেশটিতে বর্তমানে করোনা রোগীর সংখ্যা দিনদিন বৃদ্ধি পাচ্ছে।

বুধবার (১১ নভেম্বর) দেশটিতে নতুন করে ২৬৯৩ জনের শরীরে করোনা ধরা পড়েছে। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের তথ্য অনুযায়ী, তুরস্কে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে ৪ লাখের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে এবং ১১ হাজার ১৪৫ জন এই রোগে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছে।



মন্তব্য চালু নেই