মেইন ম্যেনু

জানেন কি অ্যান্টাসিডে রয়েছে ক্যান্সারের বিষ!

খাবার খেয়ে অস্বস্তি হলেই অনেকে অ্যান্টাসিড খুঁজেন। আবার কেউ কেউ নিয়মিত সঙ্গেও রাখেন এই ওষুধটি। অনেক চিকিৎসক অ্যান্টিবায়োটিকের সঙ্গে অ্যান্টাসিড খাওয়ার পরামর্শও দেন। কিন্তু আমেরিকার এফডিএ রিপোর্ট বলছে, অ্যান্টাসিডে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী উপাদান রয়েছে!

মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের ‘ফুড অ্যান্ড ড্রাগ অ্যাডমিনিস্ট্রেশন’-এর (এফডিএ) প্রকাশিত সাম্প্রতিক রিপোর্টে সে দেশে প্রচলিত বেশ কয়েকটি অ্যান্টাসিডে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী রাসায়নিকের উপস্থিতির প্রমাণ মিলেছে বলে জানানো হয়েছে। গোটা বিষয়টি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে মার্কিন স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ও।

এফডিএ’র দাবি, বেশ কয়েকটি অ্যান্টাসিডে এন-নাইট্রোসোডিমিথালানিন বা এনডিএমএ নামের রাসায়নিকের উপস্থিতি ধরা পড়েছে যা ক্যান্সারের জন্য দায়ী। র‍্যানিটিডিন জাতীয় ওষুধে এই রাসায়নিকের উপস্থিতি বিশেষভাবে লক্ষ্য করা গেছে। উল্লেখ্য, বিশ্বস্বাস্থ্য সংস্থা ‘হু’-এর প্রয়োজনীয় ওষুধের মডেল তালিকাতেও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে র‍্যানিটিডিন জাতীয় অ্যান্টাসিড।

বিভিন্ন দেশের একাধিক ওষুধ কোম্পানি র‍্যানিটিডিন জাতীয় অ্যান্টাসিড তৈরি করে। এফডিএ’র এই রিপোর্ট পেয়ে বিভিন্ন দেশ পদক্ষেপ নিতেও যাচ্ছে। ইতিমধ্যে পার্শ্ববর্তী দেশ ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ও সে দেশের বাজারে প্রচলিত র‍্যানিটিডিন জাতীয় অ্যান্টাসিডে কার্সিনোজেনের উপস্থিতি রয়েছে কি না, তা খতিয়ে দেখার নির্দেশ দিয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই