মেইন ম্যেনু

ট্রাম্পের চিঠি ডাস্টবিনে ছুঁড়ে ফেললেন এরদোয়ান

তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যিপ এরদোয়ান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের লেখা একটি চিঠি ‘ডাস্ট বিনে ছুঁড়ে ফেলেছিলেন’ বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে বিবিসি।

গত ৯ই অক্টোবর এই চিঠিটি লেখা হয়, এবং সিরিয়া থেকে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহারের পর এটা ওয়াশিংটন থেকে আংকারায় পাঠানো হয়।

এতে এরদোয়ানকে লক্ষ্য করে ট্রাম্প মন্তব্য করেন: “কঠিন হবেন না। বোকামি করবেন না।”

তুর্কী সংসদে বিবিসির সূত্রগুলো জানাচ্ছে, এরদোয়ান ঐ চিঠিকে পুরোপুরিভাবে খারিজ করে দিয়েছেন।

এই চিঠি যে দিনটিতে তুরস্কের হাতে পৌঁছায় সেই দিনেই তুর্কী সামরিক বাহিনী সীমান্ত অতিক্রম করে উত্তর সিরিয়ায় কুর্দি বাহিনীর বিরুদ্ধে অভিযান শুরু করে।

উত্তর সিরিয়া থেকে মার্কিন সৈন্য প্রত্যাহারের পর ট্রাম্পের বিরুদ্ধে কড়া সমালোচনা হয়েছে। অনেকেই বলছেন, এই প্রত্যাহারের মধ্য দিয়ে তুরস্কের সেনা অভিযানের প্রতি একটা ‘সবুজ সঙ্কেত’ দেয়া হয়েছে।

তুরস্ক গত সপ্তাহে যে অভিযান শুরু করে তার দু’টি লক্ষ্য: প্রথমত ওয়াইপিজি নামে পরিচিত কুর্দি-সিরিয়ান মিলিশিয়া বাহিনীকে হটিয়ে দেয়া। তুরস্ক কুর্দি মিলিশিয়াদের সন্ত্রাসী হিসেবে বিবেচনা করে।

তুর্কী অভিযানের দ্বিতীয় লক্ষ্য: উত্তর সিরিয়ায় একটি ‘নিরাপদ এলাকা’ গড়ে তোলা যেখানে তুরস্কে বসবাসকারী প্রায় ২০ লক্ষ সিরিয়ান শরণার্থীদের এনে বসানো হবে।



মন্তব্য চালু নেই