মেইন ম্যেনু

ডিমলায় তিস্তা বাজার যুব উন্নয়ন সমিতির দ্বি-বার্ষিক আলোচনা সভায় দুই চেয়ারম্যান প্রার্থী

হামিদা আক্তার, নীলফামারী থেকে : নীলফামারীর ডিমলায় তিস্তা নদীর অববাহিকায় তিস্তা বাজার যুব উন্নয়ন সমিতির দ্বি-বার্ষিক আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়েছে। ৩০ সেপ্টেম্বর শনিবার বিকেলে তিস্তা নদীর গাইড বাঁধে তিস্তা বাজারে সমিতির কার্যালয়ে সভাপতি শাহিনুর রহমানের সভাপতিত্বে ও সহ-সভাপতি শহিদুল ইসলামের সঞ্চালনায় বক্তৃতা করেন প্রধান অতিথি টেপাখড়িবাড়ী ইউপি চেয়ারম্যান ও আসন্ন আগামাী ২১ অক্টোবর উক্ত ইউপি নির্বাচনে আবার আনারস প্রতীকে সতন্ত্র চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী রবিউল ইসলাম সাহিন, বিশেষ অতিথি আওয়ামীলীগের মনোনিত নৌকা প্রতীকে চেয়ারম্যান পদ প্রার্থী ময়নুল হক, ইউনিয়ন সভাপতি মুক্তিযোদ্ধা মিয়ার উদ্দিন, প্রভাষক ইয়াছিন আলী সরকার, প্রধান শিক্ষক আব্দুর রহিম সরকার, ইউপি সদস্য ইব্রাহিম আলী,স্বাস্থ্য কর্মী মহববত হোসেন ও বিজয় টিভি প্রতিনিধি হামিদা বারী প্রমুখ।

এসময় সমিতির সকল সদস্য ও স্থানীয় গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গসহ প্রায় তিন শতাধিক মানুষ অনুষ্ঠানে উপস্থিত থেকে বক্তৃতা শুনেন। বক্তৃতায় বক্তাগণ বলেন, সংগঠনটি একটি ব্যতিক্রমী সংগঠন। এ সংগঠনের সকল সদস্য সৎ নিষ্ঠাবান ও নির্ভিক। সমাজ ও গ্রাম উন্নয়নে তারা বদ্ধ পরিকর। ইতি মধ্যে সমিতির পক্ষ থেকে সামাজিক নানা উন্নয়ন মূখী কর্মকান্ডে সমিতির ভাবমূতি গ্রামে অনেকটা উজ্জল।

প্রধান অতিথির বক্তৃতায় ইউপি চেয়ারম্যান রবিউল ইসলাম সাহিন বলেন, সমিতির কার্যক্রম দেখে মনে হচ্ছে একদিন অনেক সংগঠন এই সংগঠনটিকে অনুসরণ করবে বলে আমার বিশ্বাস। তিনি প্রতিশ্রæতি দিয়ে আরো বলেন, প্রতিবছর এই সমিতির বার্ষিকী অনুষ্ঠানে যত ব্যয় হবে তা সব কিছুই আমার ব্যক্তিগত অর্থ থেকে দেওয়া হবে। এমনকি আগামী তৃতীয় বার্ষিকীতে সমিতির সকল সদস্যকে পছন্দ অনুসারে এক কালারের পোশাক আমি ব্যক্তিগত ভাবে উপহার দিবো। এবং এই সমিতির যাতে খুব শিঘ্রই সরকারের নিবন্ধন নিতে পারে সে ব্যাপারেও সহযোগীতা করবো। সব শেষে প্রধান অতিথি বলেন, এই ইউনিয়নবাসীর সুখে-দুখে, অভাব-অনটনে, বিপদে-আপদে যারা পাশে থাকেন, যারা সব সময় আপনাদের খোঁজ-খবর রাখেন সর্বোপরি সৎ ও যোগ্য ব্যক্তি বাছাই করে আসন্ন ইউপি নির্বাচনে আপনার মূল্যবান ভোট প্রয়োগ করবেন।

বিশেষ অতিথির বক্তৃতায় নৌকা প্রতীকে চেয়ারমান পদ প্রার্থী ময়নুল হক বলেন, এবারে এই ইউনিয়নে আমরা তিন জন চেয়ারম্যান পদে প্রার্থী হয়েছি। আপনারা যে কাউকেই আপনাদের ভোট দিতে পারেন। তবে কেউ হুমকী ধামকি দিয়ে ভোট চাইলে আমাদেরকে জানাবেন। আমরা নিশ্চয় ব্যবস্থা নিবো ইনশাল্লাহ। উক্ত সমিতির কোষাধ্যক্ষ শফিকুল ইসলাম আয় ব্যয়ের হিসেব দিয়ে বলেন বর্তমানে সংগঠনটির সঞ্চয় রয়েছে প্রায় ১০ লক্ষ টাকা। সামাজিক এই সংগঠনটি স্থানীয়ভাবে বাল্য বিবাহ প্রতিরোধ, মাদকের বিরুদ্ধে সচেতনতা মূলক উঠান বৈঠক, শিশু ও নারী নির্যাতন প্রতিরোধ ও বনায়ন কর্মসূচীসহ বিভিন্ন সামাজিক কাজে নিয়োজিত থেকে গ্রাম উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে।



মন্তব্য চালু নেই