প্রধান ম্যেনু

ঢাবির দুই বিভাগ ও বুয়েটে ক্লাস বর্জন

করোনা ভাইরাস উদ্বেগে শনিবার ক্লাস বর্জন করেছেন বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বুয়েট) শিক্ষার্থীরা। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) অর্থনীতি ও প্রাণিবিদ্যা বিভাগের শিক্ষার্থীরাও করোনার সংক্রমণ প্রতিরোধে ক্লাস-পরীক্ষা বর্জনের ঘোষণা দিয়েছেন। এ ছাড়া ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের (ঢামেক) শিক্ষার্থীরা আবাসিক হল ছেড়ে যাচ্ছেন বলে জানা গেছে।

ঢাবির অর্থনীতি ও প্রাণিবিদ্যা বিভাগের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে কথা বলে জানা যায়, করোনার সংক্রমণ থেকে সুরক্ষিত থাকতে জনসমাগম এড়িয়ে চলতে ক্লাস ও পরীক্ষা বর্জন করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তারা। অনলাইনে ভোটের মাধ্যমে জনমত জরিপ করে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বিভাগ দুটির শিক্ষার্থীরা। এর মধ্যে অর্থনীতি বিভাগে চলমান মিডটার্ম পরীক্ষাও বর্জন করেছেন শিক্ষার্থীরা।

বুয়েট সূত্রে জানা গেছে, করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ থেকে মুক্ত থাকতে বুয়েটের সব বিভাগের ক্লাস বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন শিক্ষার্থীরা। প্রত্যেক বিভাগের ক্লাস রিপ্রেজেন্টেটিভরা (সিআর) গত শুক্রবার রাতে এই সিদ্ধান্ত নেন। এই সিদ্ধান্তের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে। গতকাল শিক্ষার্থীরা কোনো ক্লাসে অংশ নেননি। তবে তারা কত দিন ক্লাস বর্জন করবেন সে বিষয়ে জানা যায়নি। বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের পক্ষ থেকেও কোনো সিদ্ধান্ত দেওয়া হয়নি।

এ বিষয়ে বুয়েটের এক শিক্ষার্থী বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে শনিবার ক্লাসে যাইনি। এর আগে সব ব্যাচের সিআর মিলে আগামী এক-দুই সপ্তাহ ক্লাসে না যাওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছি। এটা ছাত্রকল্যাণ পরিদপ্তরের পরিচালক স্যারকে জানিয়েছি। তবে কোনো চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়নি। বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন সিদ্ধান্ত নেবে বলে জানিয়েছে।

বুয়েট ছাত্র কল্যাণ পরিদপ্তরের পরিচালক অধ্যাপক মিজানুর রহমান বলেন, অধিকাংশ বিভাগেই শিক্ষার্থীরা ক্লাসে আসেনি। তবে ঠিক কী কারণে তারা আসেনি, সেটা বলতে পারব না। বিশ্ববিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা হয়েছে গত বৃহস্পতিবার। রেওয়াজ আছে প্রতিযোগিতার পরদিন শিক্ষার্থীরা ক্লাসে আসে না। এবারও কি এ কারণে না করোনার আতঙ্কে সেটা পরবর্তী ক্লাসের দিন উপস্থিতির হার দেখে বোঝা যাবে।

এ ছাড়াও করোনার কারণে কলেজের একাডেমিক কার্যক্রম বন্ধ এমন খবর ছড়িয়ে হল ছাড়ছেন ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের শিক্ষার্থীরা। তবে কলেজ কর্তৃপক্ষ বলছে কলেজের কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে। বন্ধ ঘোষণা করা হয়নি। করোনা মোকাবিলায় আজ রবিবার একাডেমিক কাউন্সিলের সভা ডাকা হয়েছে।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের অধ্যক্ষ খান আবুল কালাম আজাদ বলেন, ঢাকা মেডিক্যাল কলেজের সব ক্লাস চলছে। করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় রবিবার (আজ) আমরা একাডেমিক কাউন্সিলের সভা ডেকেছি। সরকারিভাবে যেদিন সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হবে সেদিনই ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ বন্ধ করা হবে; এর আগে নয়।



মন্তব্য চালু নেই