দেশের মাটিতে পা রাখলেন ‘বিশ্বজয়ী’ বীরেরা

প্রতীক্ষার প্রহর শেষে বাংলার স্বপ্ন সারথিরা দেশে ফিরেছেন। বুধবার (১২ ফেব্রুয়ারি) বিকেল ৫টার কিছু আগে অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপজয়ী দলটিকে বহনকারী এমিরেটস এয়ারলাইন্সের বিমানটি হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছান।

বিশ্বকাপজয়ী যুবাদের আনুষ্ঠানিকভাবে বরণ করে নেবেন বিসিবি সভাপতি ও ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী। বিমানবন্দর থেকে বীর ক্রিকেটারদের ক্রিকেট বোর্ডে নেয়া হবে বিশেষ বাসে। ইয়াং টাইগারদের জন্য সকাল থেকে বিমানবন্দরে অপেক্ষায় রয়েছেন সমর্থকরা।

ইতিহাস সৃষ্টিকারীদের নিয়ে মাতামাতি হবে এটাই স্বাভাবিক। হয়েছেও তাই। সকাল থেকেই সাজ সাজ রব ছিলো বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডে। যেন উৎসবের শহর। এ যাত্রায় রং ছড়িয়েছেন সমর্থকরা।

দেশের ক্রিকেটকে যারা নিয়ে গেছেন গৌরবের শীর্ষে তাদের ছুঁয়ে দেখতে ভক্তদের আকুতি সীমাহীন। সকাল থেকেই তাই লাল সবুজের জার্সিতে বিসিবিতে জড়ো হতে থাকেন সমর্থকরা।

শুরুতে ওয়াটার স্যালুটের কথা থাকলেও, আপাতত তা হচ্ছে না। বিমানবন্দরে কেক কাটার পর্ব শেষে তারা পাবেন ফুলেল সংবর্ধনা। বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান উপস্থিত থেকে শুরু করবেন আনুষ্ঠানিকতা। ছাদ খোলা বাস তাদের নিয়ে যাবে মিরপুরে হোম অফ ক্রিকেটে।

ইয়াং টাইগারদের এমন অর্জনে শিগগিরই প্রধানমত্রীর পক্ষ থেকে সংবর্ধনা দেয়া হবে বলে জানিয়েছেন ক্রীড়া প্রতিমন্ত্রী জাহিদ হাসান রাসেল।

চমৎকার এ অর্জন যাদের হাত ধরে এসেছে তাদের ধরে রাখতে সরকারের পক্ষ থেকেও উদ্যোগ নেয়া হবে বলেও জানিয়েছেন প্রতিমন্ত্রী।



মন্তব্য চালু নেই