দেশের সামগ্রিক স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে প্রাক্তন এমপি এমএ হাশেমের আহবান

বাংলাদেশ জাতীয় সংসদ এর একজন প্রাক্তন সংসদ সদস্য বা নীতি প্রণেতা হিসেবে আমি মনে করি, দেশের সামগ্রিক স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য খাতে অপচয় রোধে জাতীয় পর্যায়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নেতৃত্বে একটি শক্তিশালী কমিটি গঠন একান্ত প্রয়োজন। এ কমিটিতে স্বাস্থ্যমন্ত্রনালয় সহ উন্নয়ন সংশ্লিষ্ট মন্ত্রনালয়ের মাননীয় মন্ত্রীবর্গের অন্তর্ভূক্ত করে এবং সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধান ও সমন্বয়ের মাধ্যমে কার্যক্রম পরিচালনা করলে দেশ ও জাতি উপকৃত হবে বলে আমি মনে করি। বাংলাদেশ এর সামগ্রিক স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়ন ও স্বাস্থ্য খাতে অপচয় রোধে নিন্ম উল্লেখিত পদক্ষেপ আশার আলো দেখাতে পারে বলে আমি মনে করিঃ

ক. সরকারি তহবিলের অপচয়
জেলাপর্যায়ের সরকারি হাসপাতালে অনেক দামি ও অত্যাধুনিক যন্ত্রপাতি ক্রয় করা হয় যার বেশির ভাগই পরিচালনা করার মতো দক্ষ জনবল এ সব হাসপাতালে থাকে না। যার ফলে অনেক দামি ও দরকারি যন্ত্রপাতির সঠিক ব্যবহার না হয়ে অযত্নে পড়ে থাকে। এ ধরনের তথাকথিত অপরিকল্পিত পদক্ষেপ গ্রহণ করার মূল লক্ষই থাকে কিছু অসাধু মানুষের অর্থনৈতিক সুবিধা লাভ করা। যার ফলে সরকারি তহবিলের অপচয় হচ্ছে। এসকল যন্ত্রপাতি ক্রয়ে নানা অনিয়মের অভিযোগ রয়েছে এবং এসব অভিযোগে তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। একে অন্যের ওপর দায় চাপায়। তারপর ফাইল চাপা পড়ে থাকে। এ কারণে সাধারণ মানুষ এবং রোগীদের যথেষ্ট ক্ষতি হচ্ছে। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের যতটুকুই সম্পদ ও জনবল আছে, তা ভালো ব্যবস্থাপনায় ও দুর্নীতিমুক্তভাবে পরিচালনা করা হলে সরকারি হাসপাতালগুলো আরও ভালোভাবে চালানো সম্ভব। স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়কে এদিকে নজর দিতে হবে।

খ. স্বাস্থ্য খাতে অনিয়মে বিভিন্ন পর্যায়ের মানুষের সম্পৃক্ততা
সরকার বহু চেষ্টা করার পরেও স্বাস্থ্য খাতে অনিয়ম নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না কারণ বিভিন্নভাবে বিভিন্ন সরকারি/বেসরকারি ডাক্তার ও ব্যবসায়ী এর সাথে জড়িত।

গ. স্বাস্থ্য খাতে অনিয়ম ও অপচয় রোধে যন্ত্রাংশ, ওষুধপত্র এবং অবকাঠামো উন্নয়নসহ যাবতীয় কাজ সেনাবাহিনীর সমন্বয় এর মাধ্যমে সম্পাদন
সরকার বহু চেষ্টা করার পরেও স্বাস্থ্য খাতে অনিয়ম ও অপচয় নিয়ন্ত্রণ করতে পারছে না কারণ বিভিন্নভাবে বিভিন্ন সরকারি/বেসরকারি ডাক্তার ও ব্যবসায়ী এর সাথে জড়িত থাকার কারণে। কাজেই সরকার যত চেষ্টাই করুক না কেন এ থেকে অব্যাহতি পাওয়া খুবই দুরূহ ব্যাপার। সে ক্ষেত্রে আমার পরামর্শ আমাদের দেশের সেনাবাহিনী নিরপেক্ষ স্বাধীন সার্বভৌম দেশের সেনাবাহিনী। প্রধানমন্ত্রী বহু চিন্তাভাবনা করে অনেক কর্মকাণ্ড সেনাবাহিনীর মাধ্যমে করেছেন এবং এ সকল কাজের গুণগতমান অত্যন্ত ভালো। এ সকল কাজ সততার মাধ্যমে হয়েছে এবং দুর্নীতিমুক্ত ছিল। সে ক্ষেত্রে আমার পরামর্শ সরকার সেনাবাহিনীকে সরকারি হাসপাতাল সমূহের যন্ত্রাংশ, ওষুধপত্র ক্রয় এবং অবকাঠামো উন্নয়নসহ যাবতীয় কাজে সমন্বয় করলে অপচয় এর সম্ভাবনা থাকবে না। বিগত কয়েক বছর সরকারি হাসপাতালে ক্রয়-বিক্রয়ের যে সমস্ত সমালোচনা এবং অপব্যয় আমরা দেখতে পাচ্ছি আশা করি এ পদ্ধতিতে অপচয় রোধ হবে এবং আমার উদ্দেশ্য একটাই অন্তত মানুষের মূল্যবান জীবন নিয়ে যাতে করে সমস্যা তৈরি করতে না পারে।

ঘ. মানসম্মত পণ্য ও স্বাস্থ্য সেবা প্রদান
সরকারের প্রতি বছর সরকারি হাসপাতালের জন্য বিভিন্ন রকমের জীবন রক্ষার মেশিনারি ক্রয় করতে হয় সে ক্ষেত্রে যদি মানসম্মত মেশিন না হয় মানুষের জীবন হুমকির ভিতরে পড়তে পারে। শুধুমাত্র মেশিন নয় বিভিন্ন রকমের ওষুধ আমদানি করতে হয় এতেও যদি মানসম্মত ওষুধ না আনা হয় তবে মানুষের মৃত্যু ঝুঁকি বেড়ে যেতে পারে।

ঙ. অনভিজ্ঞ সরবরাহকারী প্রতিষ্ঠান
সরকার প্রতিবছর কয়েক হাজার কোটি টাকা মূল্যের মেশিনারি ক্রয় করে। এরমধ্যে আমি যতটুকু জানি কিছু অনভিজ্ঞ সরবরাহ চ্যানেল বিদ্যমান যার কারণে কিছু সরবরাহকারী বর্তমানে বেআইনিভাবে প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ছাড়া অন্যান্য নিম্নমানের জিনিস সরবরাহ করে দেশ বিরোধী কর্মকান্ড করে টাকা আত্মসাৎ করে দেশের বাহিরে আত্মগোপনে আছে।

চ. আর্মি মেডিকেল কোর এর তত্ত্বাবধানে করোনা ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রম পরিচালনা
করোনা ভ্যাকসিন এর প্রথম ডোজ বের হয়েছে, সরকার সামনে ৩ কোটি করোনা ভ্যাকসিন ক্রয় করবে, এটি কিভাবে ব্যবস্থাপনা হবে আমরা জানি না। ভ্যাকসিন প্রদান কার্যক্রমে যাতে কোন অনিয়ম না হয় সেই লক্ষে এ কার্যক্রম আর্মি মেডিকেল কোর এর তত্ত্বাবধানে পরিচালনার আহবান জানাচ্ছি।

আমি মাননীয় প্রধানমন্ত্রীকে বিনয়ের সাথে জানাতে চাই, বেসরকারি হাসপাতালগুলোকে রক্ষা করার জন্য সেনাবাহিনীকে সমন্বয় করে কার্যক্রম পরিচালনা করা একান্ত প্রয়োজন। কারণ সেনাবাহিনীতে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালের ডাক্তারদের তত্ত্বাবাধন ও সমন্বয়ের মাধ্যমে কার্যক্রম পরিচালনা করলে দেশ ও জাতি উপকৃত হবে।

আমি স্বাস্থ্যমন্ত্রীকে বিনয়ের সাথে বলতে চাই আপনার মন্ত্রণালয় দক্ষ জনবল সহ এগোচ্ছে কি? স্বাস্থ্যমন্ত্রী সরকারি হাসপাতালগুলোর গত বছর খরচ কত ছিল? বর্তমানে একটি ক্যান্সার হাসপাতাল হতে যাচ্ছে সেখানে যেন দুর্নীতি না হয় সেটিও ভেবে দেখা প্রয়োজন। সেনাবাহিনীর তত্ত্বাবধানে ও সমন্বয়ের মাধ্যমে এসব কাজ হলে ভাল ভাবে সম্পন্ন হবে। ভালো মানের মেশিনারি যেমন সিমেন্স (জার্মানি) এর মানসম্মত মেশিন কিনা যেতে পারে।

এম.এ. হাসেম
প্রাক্তন সংসদ সদস্য
প্রতিষ্ঠাতা ট্রাস্টি- নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটি
চেয়ারম্যান- পারটেক্স গ্রুপ

নর্থ সাউথ ইউনিভার্সিটির জনসংযোগ অফিস কর্তৃক প্রেরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই