মেইন ম্যেনু

ধানের শীষ পেলেন ইলিয়াসপত্নী, নৌকার প্রার্থী নেই

সিলেট-২ (বিশ্বনাথ-ওসমানীনগর) আসনে বিএনপির মনোনয়ন পেয়েছেন অর্ধযুগ ধরে নিখোঁজ বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা সাবেক সংসদ সদস্য এম ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা। তবে এই আসন থেকে নৌকার কোনো প্রার্থী দেয়নি আওয়ামী লীগ।

সোমবার বিকেলে লুনা বিএনপির ধানের শীষের মনোনয়নের চিঠি হাতে পেয়েছেন বলে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন তার এপিএস সিলেট জেলা বিএনপির যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মো. মঈনুল হক।

তিনি বলেন, লুনা ম্যাডাম ধানের শীষের মনোনয়নের চিঠি হাতে পেয়েছেন। এখন ভোটের মাঠে নামার প্রস্তুতি নিচ্ছি আমরা। এখানে আমাদের প্রতিরোধ করার মতো বড় কোনো প্রার্থী নেই।

১৫ নভেম্বর এম ইলিয়াস আলীর স্ত্রী তাহসিনা রুশদীর লুনা ও বড় ছেলে যুক্তরাজ্য প্রবাসী ব্যারিস্টার আবরার ইলিয়াস ঢাকায় বিএনপি কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে নেতাকর্মীদের নিয়ে দুটি মনোনয়ন ফরম জমা দেন।

মনোনয়নপ্রত্যাশী ও তাদের সঙ্গে আগত নেতাকর্মীদের ভিড়ের কারণে কার্যালয়ে ঢুকতে পারেননি তাহসিনা রুশদীর লুনা। সিলেট বিএনপি ও সহযোগী দলের নেতাকর্মী এবং সমর্থকদের নিয়ে কার্যালয়ের নিচে অবস্থান করেন তিনি। পরে দলীয় নেতাকর্মীদের নিয়ে মা-পুত্রের মনোনয়ন দুটি জমা দেন ছেলে আবরার ইলিয়াস।

ওই সময় স্থানীয় বিএনপি নেতাকর্মীরা জানান, মায়ের সঙ্গে দামি প্রার্থী হিসেবে আবরার ইলিয়াস মনোনয়নপত্র জমা দিয়েছেন। তবে মা-পুত্রের মধ্যে মনোনয়ন পাওয়া, না পাওয়া নিয়ে কোনো প্রতিযোগিতা নেই।

এম ইলিয়াস আলী (২০০১-২০০৬) সাল পর্যন্ত সংসদ সদস্য ছিলেন। বিএনপির সাংগঠনিক সম্পাদক হিসেবে ২০১০ সালে নির্বাচিত হন ইলিয়াস আলী। ২০১২ সালের ১৭ এপ্রিল মধ্যরাতে রাজধানী ঢাকার ডিএসও এলাকা থেকে নিখোঁজ হন ইলিয়াস আলী ও তার গাড়িচালক আনসার আলী। এরপর থেকে আজও তাদের খোঁজ মেলেনি।

সিলেটের প্রবাসী অধ্যুষিত হিসেবে পরিচত ‘বিশ্বনাথ-ওসমানীনগর উপজেলা’ নিয়ে গঠিত সিলেট-২ আসন। দুই উপজেলার ১৬টি ইউনিয়নের ১৪৪টি ওয়ার্ডের বাসিন্দাদের মধ্যে ভোটার হচ্ছেন ২ লাখ ৮৬ হাজার ৪০৩ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৪৪ হাজার ৮৮১ জন ও মহিলা ভোটার সংখ্যা ১ লাখ ৪১ হাজার ৫৫২ জন।

আগামী ৩০ ডিসেম্বর দুই উপজেলার ভোটাররা ১২৭টি ভোট কেন্দ্রের ৬১৪টি ভোট কক্ষে নিজেদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করে নির্বাচিত করবেন নিজেদের পছন্দের প্রার্থীকে।

এদিকে, আওয়ামী লীগের নেতৃত্বাধীন মহাজোট এ আসন থেকে জাতীয় পার্টির কেন্দ্রীয় নেতা বর্তমান এমপি ইয়াহইয়া চৌধুরী এহিয়াকে আবারও লাঙল প্রতীকে মনোনয়ন দিয়েছেন।

তবে তার এ মনোনয়ন ঠেকানোর জন্য স্থানীয় আওয়ামী লীগের বিবদমান দুটি গ্রুপ এক হয়ে নৌকা প্রতীকে নিজদলের নেতাদের মধ্য থেকে প্রার্থী দেয়ার দাবিতে সোমবার দুপুরে সিলেট-ঢাকা মহাসড়ক অবরোধ করে বিক্ষোভ করেছেন। ঘণ্টাখানেক পর অবশ্য অবরোধ তুলে নেন তারা। তবে নিজেদের দলীয় প্রার্থীর মনোনয়নের বিষয়ে অনড় রয়েছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরা।



মন্তব্য চালু নেই