মেইন ম্যেনু

নবম ওয়েজবোর্ড বাস্তবায়নে ‘জুনের মধ্যে ঘোষণা’

এই অর্থবছরের মধ্যেই নবম ওয়েজবোর্ডের সুপারিশ চূড়ান্ত করে বাস্তবায়নের ঘোষণা দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন এ সংক্রান্ত মন্ত্রিসভা কমিটির আহ্বায়ক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

বৃহস্পতিবার তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে কমিটির বৈঠক শেষে সাংবাদিকদের তিনি এ কথা জানান।

সেতুমন্ত্রী বলেন, আমরা ঠিক করেছি, ঘোষণার আগে স্টেকহোল্ডারদের সঙ্গে যৌথসভা করব। বোর্ড সদস্যদের উপস্থিতিতে সেই যৌথসভাটি ১২ জুন বেলা ১১টায় তথ্য মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে হবে। সেদিন সব পক্ষের সঙ্গে আলাপ-আলোচনা করে আমরা একটা সিদ্ধান্তে পৌঁছাব।

তিনি বলেন, আশা করছি, জুন মাসে তথা এই অর্থবছরের মধ্যে এই রোয়েদাদ বাস্তবায়ন সম্পর্কিত আমাদের ঘোষণা পেশ করতে পারব।

বৈঠক প্রসঙ্গে ওবায়দুল কাদের বলেন, নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ডের রোয়েদাদ বাস্তবায়নের বিষয়ে আলাপ-আলোচনা হয়েছে। আসলে বিষয়টি আরো আগেই আমরা সমাধানে যেতে পারতাম, ঘোষণাও দিতে পারতাম। আমাকে সভাপতি করার পরপরই আমি একটি মিটিং করার সুযোগ পেয়েছিলাম। সেদিন আমরা নোয়াবের প্রতিনিধিদের সঙ্গে মূলত আলোচনা করেছি। এর পর পরই আমি অসুস্থ হয়ে পড়ি।

তিনি বলেন, আমরা একটি বিষয়ে ঐক্যমত পোষণ করেছি- এই বিষয়টিকে আর ঝুলিয়ে রাখা সমীচীন হবে না। যত দ্রুত সম্ভব আমরা সমাধান করে সবার কাছে মোটামুটি গ্রহণযোগ্য একটা ঘোষণা দেব। নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ডের বিষয়ে আমাদের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত জানাব।

এর আগে নবম ওয়েজবোর্ডের সুপারিশ চূড়ান্ত করতে বেলা সোয়া ১১টার দিকে তথ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে মন্ত্রিসভা কমিটির বৈঠক শুরু হয়। শেষ হয় পৌনে ১টার দিকে।

মন্ত্রিসভা কমিটির আহ্বায়ক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরের সভাপতিত্বে বৈঠকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামাল, তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ, শিল্পমন্ত্রী নূরুল মজিদ হুমায়ুন, শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী মন্নুজান সুফিয়ান, সংস্কৃতিবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ ও তথ্য প্রতিমন্ত্রী ডা. মো মুরাদ হাসান উপস্থিত ছিলেন।

নতুন সরকার গঠনের পর নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ডের সুপারিশ পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে তা চূড়ান্ত করতে সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদেরকে প্রধান করে মন্ত্রিসভা কমিটি পুনর্গঠন করা হয়। কমিটির প্রধান দীর্ঘদিন অসুস্থ থাকার কারণে এর মধ্যে আর কোনো বৈঠক হয়নি।

গত ৪ নভেম্বর সচিবালয়ে তখনকার তথ্যমন্ত্রী হাসানুল হক ইনুর কাছে ‘নবম সংবাদপত্র মজুরি বোর্ড রোয়েদাদ ২০১৮’ সুপারিশমালা জমা দেন বোর্ডের চেয়ারম্যান অবসরপ্রাপ্ত বিচারপতি মো. নিজামুল হক।

সংবাদকর্মীদের বেতন-ভাতা সর্বোচ্চ ৮৫ শতাংশ বাড়ানোর সুপারিশ করেছে নবম ওয়েজবোর্ড, যা গত বছরের ৩ ডিসেম্বর মন্ত্রিসভা বৈঠকে উপস্থাপন করা হয়। মন্ত্রিসভা বৈঠকে নবম ওয়েজবোর্ডের সুপারিশ উপস্থাপনের পর মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেছিলেন, ওয়েজ বোর্ডে প্রথম তিনটি গ্রেডে ৮০ শতাংশ ও শেষের দিকে তিনটি গ্রেডে সর্বোচ্চ ৮৫ শতাংশ বেতন বাড়ানোর সুপারিশ করা হয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই