প্রধান ম্যেনু

নরসিংদীর ‘নিলুফা ভিলা’য় অভিযানের প্রস্তুতি

নরসিংদীর ভগীরথপুরে জঙ্গি অভিযান শেষে মাধবদীর ‘নিলুফা ভিলা’য় অভিযানের প্রস্তুতি নিচ্ছে পুলিশের কাউন্টার টেররিজম অ্যান্ড ট্রান্সন্যাশনাল (সিটিটিসি) ইউনিট।

মাধবদী পৌরসভা সংলগ্ন ছোট গদাইরচর গাংপাড় এলাকায় ওই বাড়িটি ঘিরে রেখেছে পুলিশ। বুধবার সকালে এলাকাবাসীর উদ্দেশে মাইকিং করে পুলিশ। ‘অপারেশন’ চলার সময় বাসা বাড়ির দরজা জানালা বন্ধ রাখার নির্দেশ দেয় পুলিশ প্রশাসন। একই সঙ্গে ওই এলাকায় ১৪৪ ধারা জারি করেছে প্রশাসন। সকাল থেকেই ওই এলাকার দোকানপাট ছিল বন্ধ।

জানা যায়, সকাল সাড়ে ৯টার দিকে সোয়াটের একটি দল বাড়িটিতে প্রবেশ করেছে। সিটিটিসির পক্ষ থেকে জানানো হয়, প্রথমে আত্মসমর্পণের জন্য জঙ্গিদের আহ্বান জানানো হবে। সাড়া না পেলে আইনানুগ ব্যবস্থায় অপারেশন চালানো হবে।

সকালে সিটিটিসির পাশাপাশি জেলা পুলিশ, সিটিটিসির বোম ডিসপোজাল ইউনিট, সোয়াট এবং সিআইডির ক্রাইম সিন ইউনিটসহ আইন প্রয়োগকারী সংস্থার অন্যান্য ইউনিটের সদস্যরা একে একে ঘটনাস্থলে আসেন। সাততলা বাড়িটিতে একাধিক জঙ্গি অবস্থান করছে বলে জানিয়েছেন সিটিটিসির সদস্যরা।

ওই ভবনের তৃতীয় তলায় ‘মিফতাহুল জান্নাহ মহিলা মাদ্রাসা’ নামে একটি মাদ্রাসা রয়েছে। ভবনটির সপ্তম তলায় জঙ্গিদের অবস্থান চিহ্নিত করে পুলিশ।

জানা যায়, নিলুফা ভিলার ওই ফ্ল্যাটটি গত ছয় মাস আগে হাফিজ ভূঁইয়া নামের এক ব্যক্তি ভাড়া নেন। তিনি নারায়ণগঞ্জের আড়াই হাজার এলাকার বাসিন্দা। গত সোমবার রাতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যরা সেখানে গেলে পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বাসার ভেতরের বাতি বন্ধ করে দেওয়া হয়।

গতকাল মঙ্গলবার সদর উপজেলার শেখেরচরের ভগীরথপুরে জঙ্গিবিরোধী যৌথ অভিযান ‘অপারেশন গর্ডিয়ান নটে’ দুজন নিহত হয়। আস্তানা থেকে একটি আগ্নেয়াস্ত্র ও চারটি অবিস্ফোরিত বোমা উদ্ধার করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেল ৪টার দিকে সেখানে অভিযান সমাপ্ত ঘোষণা করা হয়।

ভগীরথপুরে অভিযান শেষে সিটিটিসির প্রধান ডিআইজি মনিরুল ইসলাম জানান, অভিযানে নিহতদের মধ্যে একজন পুরুষ ও একজন নারী। তাঁরা নব্য জেএমবির সদস্য। প্রাথমিকভাবে তাঁদের পূর্ণাঙ্গ পরিচয় নিশ্চিত হওয়া যায়নি। গত ৩ অক্টোবর এখানে ফ্ল্যাট ভাড়া নিয়েছিলেন তাঁরা। ছোট গদাইরচর গাংপাড় এলাকার জঙ্গিদের সঙ্গে এখানকার জঙ্গিদের যোগসাজস রয়েছে।



মন্তব্য চালু নেই