নিউজিল্যান্ডে ভূমিকম্প, নিরাপদে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল

মাত্র কয়েক ঘণ্টার ব্যবধানে তিনটি শক্তিশালী ভূমিকম্পের কবলে পড়ে নিউজিল্যান্ড। যে কারণে জারি করা হয় সুনামি সতর্কতা। নিরাপদ স্থানে সরিয়ে নেওয়া হয় উপকূলীয় অঞ্চলের বাসিন্দাদের।

ভূমিকম্পের ফলে দেশটিতে থাকা সফররত বাংলাদেশ দলকে নিয়ে চিন্তিত ছিলেন সবাই। তবে স্বস্তির খবর দিয়েছে বিসিবি। বিসিবির ক্রিকেট পরিচালনা বিভাগের চেয়ারম্যান আকরাম খান সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন- সবাই সুস্থ আছে, কারও কোনো সমস্যা হয়নি। গভীর রাতে ভূমিকম্প হয়েছে। দলের সবাই তখন ঘুমিয়ে ছিলো। কেউ-ই আসলে টের পায়নি।

এর আগে ভূমিকম্পের ঘটনায় নিউজিল্যান্ডের বেসামরিক প্রতিরক্ষামন্ত্রী কিরি অ্যালান বলেছেন, ‘যারা উঁচু ও নিরাপদ স্থানে আশ্রয় নিয়েছেন, সরকারিভাবে স্পষ্ট নির্দেশনা না দেওয়া পর্যন্ত তাদেরকে স্ব-স্ব স্থানে থাকার আহ্বান জানাচ্ছি আমরা।’

স্থানীয় সময় মধ্যরাতে দেশটির নর্থ আইল্যান্ডের জিসবোর্নে প্রথমে ৭.৩ তিন মাত্রার ভূমিকম্পের পর আবার ৮.১ মাত্রার কম্পন অনুভূত হয়। মাঝে আরেকটি ভূমিকম্প হয় ৭.২ মাত্রার। যে কারণে সুনামি সতর্কতা জারি করে সকালে সেটি তুলে নেওয়া হয়েছে।

এর আগে ২০১১ সালে একটি ৬ দশমিক ৩ মাত্রার ভূমিকম্প সরাসরি আঘাত হেনেছিলো নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চ শহরে। শহরটির অর্ধেক প্রায় ধ্বংস হয়ে গিয়েছিলো। ওই ঘটনায় মৃত্যু হয়েছিলো ১৮৫ জনের।



মন্তব্য চালু নেই