মেইন ম্যেনু

নিরপরাধ ব্যক্তি জেলে, দুদকের মহাপরিচালককে হাইকোর্টে তলব

৩৩ মামলায় প্রকৃত অভিযুক্তের জায়গায় অন্য একজন নিরপরাধ আসামিকে তিন বছর জেলে রাখায় দুদকের মহাপরিচালক (আইন)সহ চারজনকে আগামী রোববার (৩ ফেব্রুয়ারি) হাজির হওয়ার নির্দেশ দিয়েছেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে ভুল আসামি জাহালামকে কেনো মুক্তি দেয়া হবেনা তাও জানতে চেয়ে রুল জারি করেছেন আদালত।

সোমবার (২৮ জানুয়ারি) বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদের স্বপ্রণোদিত হয়ে এ আদেশ দেন।

এই চারজন হলেন দুদকের মহাপরিচালক, মামলার তদন্ত কর্মকর্তা, স্বরাষ্ট্র ও আইন সচিবের দুজন কর্মকর্তা।

৩ বছর জেল খাটা নিরপরাধ ভুক্তভুগীর জাহালম। তবে অভিযুক্ত যিনি তার নাম আবু সালেক। সালেকের বিরুদ্ধে সোনালী ব্যাংকের প্রায় সাড়ে ১৮ কোটি টাকা জালিয়াতির ৩৩টি মামলা হয়েছে। কিন্তু আবু সালেকের বদলে জেল খেটেছেন, আদালতে হাজিরা দিয়ে চলেছেন নিরাপরাধ জাহালম। যিনি পেশায় একজন পাটকলশ্রমিক। জাহালমের কারাবাসের তিন বছর পূর্ণ হবে আগামী ৬ ফেব্রুয়ারি।

এতদিন পরে এসে দুদক বলছে জাহালম নিরপরাধ প্রমাণিত হয়েছেন। তদন্ত করে একই মত দিয়েছে জাতীয় মানবাধিকার কমিশনও। ফলে একটি মামলায় তার জামিন হয়েছে। আরও ৩২টি মামলায় জামিন পাওয়ার অপেক্ষায় আছেন তিনি।



মন্তব্য চালু নেই