মেইন ম্যেনু

নীলফামারী-৪ আসনে মনোনয়ন ও নৌকা প্রতীকের দাবীতে আ.লীগের মানববন্ধন

হামিদা আক্তার, নীলফামারী থেকে : আগামী একাদ্বশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে নীলফামারী-৪ (কিশোরগঞ্জ-সৈয়দপুর) আসনে এ্যাড.আমিরুল ইসলাম আমীরের পক্ষে মনোনয়ন ও নৌকা প্রতীকের দাবীতে স্থানীয় আওয়ামীলীগের আয়োজনে সোমবার বিকেলে নীলফামারীর কিশোরগঞ্জের রণচন্ডি ইউনিয়নের জলঢাকা-রংপুর মহাসড়কে অবিলের বাজার শহীদ মিনার চত্তরে প্রায় দেড় ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন, র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

এ সময় আওয়ামী অঙ্গসংঠণের নেতাকর্মীবৃন্দসহ সর্বস্তরের পাঁচ শতাধিক সাধারণ মানুষ উপস্থিত ছিলেন। মানববন্ধন শেষে একটি র‌্যালী বের করা হলে রণচন্ডির অবিলের বাজার প্রদক্ষিণ করে রণচন্ডি স্কুল এন্ড কলেজ মাঠে এসে শেষ হয়। সেখানে সংক্ষিপ্ত আলোচনায় বক্তৃতা করেন রনচন্ডী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবুল হোসেন, ছাইয়েদার রহমান, সাধারণ সম্পাদক তপন কুমার রায়, সাংগঠনিক সম্পাদক এমদাদুল হক, কোষাধ্যক্ষ নারায়ণ চন্দ্র, ছাত্রলীগ সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, সাধারণ সম্পাদক বদিউজ্জামান বাদশা, আওয়ামী লীগ নেতা আফসার আলী বাদাউসহ আরো অনেকে। নীলফামারী-৪ (সৈয়দপুর-কিশোরগঞ্জ) আসনে গণমানুষের প্রাণপ্রিয় জননেতা এ্যাড.আমিরুল ইসলাম আমীরকে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের নৌকা প্রতীকে নির্বাচনী এলাকায় পাশে পেতেই স্থানীয় আওয়ামীলীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ ও সেচ্ছাসেবকলীগের নেতাকর্মীবৃন্দসহ সর্বস্তরের সাধারণ মানুষ আসন্ন সংসদ নির্বাচনেই আওয়ামীলীগ মনোনিত প্রাথী হিসেবে পাশে পেতে চেয়ে এলাকাবাসী। বিকেলে স্থানীয় আওয়ামীলীগের আয়োজনে মানববন্ধন কর্মসূচী পালন করা হয়। কিশোরগঞ্জ উপজেলার রনচন্ডী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি আবুল হোসেন সভাপতিত্বে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধন, র‌্যালী ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ সময় আমির ভাইয়ের নৌকার মনোনয়নের দাবীতে শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত হয়ে ওঠে রণচন্ডি স্কুল এন্ড কলেজ মাঠ প্রাঙ্গন। শতশত যুবকেরা জয় বাংলা শ্লোগানে কাঁপিয়ে তোলে রণচন্ডি।

ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের কোষাধ্যক্ষ নারায়ণ চন্দ্র রায় বক্তৃতায় বলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী কর আইনজীবিলীগ কেন্দ্রীয় কমিটির প্রকাশনা সম্পাদক, ট্যাক্স ল’ ইয়ারস্ এসোসিয়েশন কেন্দ্রী কমিটির কার্যনির্বাহী সদস্য, মুক্তিযোদ্ধা কল্যাণ ও পূর্নবাসন সোসাইটি, যুব কমান্ডের কেন্দ্রীয় কমিটির সহ-সভাপতি, ঢাকা ট্যাকসেস বার এসোসিয়েশনের কার্যনির্বাহী সদস্য, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ, নীলফামারী জেলা শাখার সহ-আইন বিষয়ক সম্পাদক, নর্থ বেঙ্গল ট্যাক্স ল’ ইয়ারস্ এসোসিয়েশনের সিনিয়র যুগ্ন সম্পাদক, ছাত্র কল্যাণ পরিষদ কিশোরগঞ্জ উপজেলা শাখার সভাপতি ও বাংলাদেশ আওয়ামী সেচ্ছাসেবকলীগের কিশোরগঞ্জ উপজেলা শাখার সাবেক আহবায়ক এ্যাডভোকেট মোঃ আমিরুল ইসলাম আমীর, এলএলবি (অনার্স) এলএলএম (রা:বি) ভাইকে আসন্ন একাদ্বশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনিত করতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আর্কষণ করছি আমরা। তিনি আরো বলেন, আসন্ন সংসদ নির্বাচনে এবারে কিশোরঞ্জবাসী আরাবও নৌকায় ভোট দিয়ে দেশকে এগিয়ে নিয়ে যেতে চায়। কিন্তু এ জন্য নীলফামারী-৪ (কিশোরগঞ্জ-সৈয়দপুর) আসনে একজন যোগ্য তরুণ নেতৃত্বের প্রয়োজন। এ কারনে আমরা সর্বস্তরের মানুষ আজ এক হয়ে একজন তরুণ ও যোগ্যনেতা, সু-যোগ্য, তরুণ, কর্মঠ ও বিজ্ঞ এ্যাড.আমীর ভাইকে নৌকা প্রতীক দেয়া হলে কিশোরবাসী এক সাথে কাজ করে যাবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাতকে শক্তিশালী করতে।

ই্উনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক বলেন, জননেত্রী শেখ হাসিনা তার যোগ্য নেতৃত্বে আমাদের এ দেশেকে রোল মডেলে পরিণত করেছে। বিশ্বে আজ অনুকরনীয়। বাস্তবে রুপ দিয়েছে ডিজিটাল বাংলাদেশের। প্রধানমন্ত্রী তারুন্য নির্ভর নের্তৃত্বে বিশ্বাসী। খন্ডিত কিশোরগঞ্জ উপজেলাটিকে এবারে তিনি অখন্ড কিশোরগঞ্জে রুপ দিয়েছেন এ জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর প্রতি আমরা চির কতৃজ্ঞ। কিশোরগঞ্জ উপজেলার মানুষ হয়েও আমরা বড়ভিটা, রণচন্ডি ও পুটিমারীবাসী সংযুক্ত ছিলাম জলঢাকা উপজেলার সাথে। ফলে এ উপজেলার মানুষ বিছিন্ন হয়ে পরি আমাদের নিজস্ব উপজেলা থেকেই। সকল উন্নয়ন থেকে আমরা পিছিয়ে পরেছি।

ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক বদিউজ্জামান বাদশা বলেন, আমাদের তিনটি ইউনিয়ন বড়ভিটা, রণচন্ডি ও পুটিমারী অবহেলিত জনপদে পরিণত হয়েছে। আমাদের কিশোরগঞ্জের এমপি না থাকায় আমার সকল উন্নয়ন থেকে পিছিয়ে পরেছি। সুতরাং এবারে আমরা আর ভুল করতে চাই না। কিশোরগঞ্জের ৯টি ইউনিয়নের বাসিন্দাদের প্রত্যেকের একটাই দাবী এবং প্রাণের দাবী কিশোরগঞ্জ থেকেই যেন আমরা আমাদের যোগ্য এমপিকে পেতে পারি।

আওয়ামী লীগ নেতা আফসার আলী বাদাউ বলেন, বর্তমান সরকারের উন্নয়নের ছোঁয়ার কোন কিছই লাগেনি এ তিন ইউনিয়নে। রাস্তা-ঘাট পুল কালভার্ট স্কুল কলেজের পূন সংস্কার কোন কিছুরেই উন্নয়ন হয়নি। তাই আমরা এবারে কিশোরঞ্জের স্থায়ী বাসিন্দাকেই নৌকা প্রতীকে দেখতে চাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর দৃষ্টি আর্কষণ করে বলতে চাই, আপনি তরুণ, সৎ ও যোগ্য নেতা বলিষ্ট কন্ঠসর নীলফামারী-৪ আসনের সর্বস্তরের মানুষের প্রাণপ্রিয় নেতা এ্যাড. আমির ভাইকে নৌকা প্রতীকে মনোনিত করে ভোট যুদ্ধে লড়াই করার সুযোগ দিন। আমরা আপনাকে নৌকা প্রতীকের সাংসদ উপহার দিবো-ইনশাল্লাহ। এবারে আমরা আমাদের প্রিয় নেতা আমির ভাইকে নৌকা প্রতীকে দেখতে চাই কিশোরগঞ্জেবাসী। আমির ভাইয়ের বলিষ্ট নেতৃত্বে আমরা কিশোরগঞ্জবাসী এখন এক কাতারে দাঁড়িয়ে জননেত্রী মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হাতকে আরো শক্তিশালী করতে কাজ করে উন্নয়নের বার্তা পৌছে দিচ্ছি রাত-দিন ২৪ ঘন্টা।



মন্তব্য চালু নেই