প্রধান ম্যেনু

নেত্রকোনায় বিএনপির প্রার্থীসহ আড়াইশ নেতাকর্মীর নামে মামলা

নেত্রকোনা-৩ (কেন্দুয়া-আটপাড়া) আসনে বিএনপির প্রার্থী মো. রফিকুল ইসলাম হিলালীসহ ২৫০ জনের নামে পৃথক দুইটি মামলা হয়েছে। বৃহস্পতিবার কেন্দুয়া থানায় পুলিশ বাদী হয়ে নাশকতা ও বিস্ফোরক আইনে এই দুইটি মামলা দায়ের করে।

দলীয় ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে আটপাড়া উপজেলা সদরের ইটাখালী বাজার এলাকায় আওয়ামী লীগের নির্বাচনী মিছিলে দুর্বৃত্তরা হাতবোমা বিস্ফোরণ ঘটায়। এতে মিছিলে থাকা যুবলীগ ও ছাত্রলীগের সাতজন নেতাকর্মী আহত হন। এ ঘটনার প্রতিবাদে ওই দিন রাত সাড়ে ৮টার দিকে কেন্দুয়ায় আওয়ামী লীগের প্রার্থী অসীম উকিলের সমর্থক ও আওয়ামী লীগের লোকজন একটি প্রতিবাদ মিছিল বের করে। মিছিলটি থানা সংলগ্ন এলাকায় বিএনপির প্রার্থী রফিকুল ইসলাম হিলালীর রাজনৈতিক কার্যালয় ও বাসার সামনে দিয়ে গেলে মিছিল থেকে ইটপাটকেল ছোড়া হয়।

এ সময় বেশ কয়েকজন দুর্বৃত্ত রফিকুলের কার্যালয় ও ব্যক্তিগত দুইটি গাড়ি ভাঙচুর করে। রফিকুল একপর্যায়ে তার ব্যক্তিগত পিস্তল ও শর্টগান দিয়ে অন্তত ২৫টির মতো ফাঁকা গুলি ছোড়েন। পরে নেত্রকোনার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) মো. শাহজাহান মিয়ার নেতৃত্বে অতিরিক্ত পুলিশ নিয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনেন। ঘটনায় ওই সময় হিলালীর রাজনৈতিক কার্যালয় থেকে নয়জনকে পুলিশ আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

আটকরা হলেন- মো.আসাদুজ্জামান, সারওয়ার হোসেন, আলী হোসেন, মজনু রহমান, মামুন খান, মিজানুর রহমান, আবু হানিফ, কাজী তায়েব, মহসিন ও সিরাজুল ইসলাম। তারা সবাই যুবদল, ছাত্রদল ও স্বেচ্ছাসেবক দলের নেতাকর্মী।

এদিকে ওই ঘটনায় বৃহস্পতিবার পুলিশ বাদী হয়ে কেন্দুয়া থানায় পৃথক দুইটি মামলা করে। মামলায় ২৫০ জনের নাম উল্লেখ করা হয়। পরে ওই মামলায় আটক ৯ ব্যক্তিকে গ্রেফতার দেখানো হয়।

কেন্দুয়া থানা পুলিশের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ইমারত হোসেন গাজী মামলার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, গ্রেফতার ব্যক্তিদের শুক্রবার আদালতে পাঠানো হবে।



মন্তব্য চালু নেই