মেইন ম্যেনু

পবিত্র জুমাতুল বিদা আজ

পবিত্র রমজানুল মোবারকের শুরু থেকে শেষ অবধি প্রায় প্রতিটি মুহূর্তই গুরুত্বপূর্ণ ও ফজিলতময়। প্রতিটি দিন, প্রতিটি রাতই মর্যাদাপূর্ণ ও তাৎপর্যমণ্ডিত। এ ছাড়া পবিত্র এ মাসে বিশেষ কিছু গুরুত্বপূর্ণ ও ফজিলতময় এবং মর্যাদাপূর্ণ ও তাৎপর্যমণ্ডিত দিন-ক্ষণ রয়েছে। এর মধ্যে জুমাতুল বিদা অন্যতম। রমজানের শেষ জুমাবার বা শেষ জুমার দিনটি মুসলিম বিশ্বে ‘জুমাতুল বিদা’ হিসেবে পরিচিত ও প্রসিদ্ধ।

আজ ১৫ জুন, শুক্রবার মহিমান্বিত সেই দিন। এবারের রমজানুল মোবারকের শেষ জুমাবার। পবিত্র জুমাতুল বিদা। জুমাতুল বিদার পাশাপাশি গোটা মুসলিম বিশ্বে এ দিনটি ‘আল-কুদস’ দিবস হিসেবেও বেশ প্রসিদ্ধ। জুমাতুল বিদা ও আল-কুদস দিবস- এই দুটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ের সম্মিলনে রমজানের শেষ জুমার দিনটি বেশ গুরুত্বপূর্ণ হিসেবে যুগ যুগ ধরে বিবেচিত হয়ে আসছে। গোটা বিশ্বের ধর্মপ্রাণ মুসলিম উম্মাহ এ দিনে একত্র হয়ে জুমার নামাজ আদায় করেন এবং মহান আল­াহর দরবারে সুখ-শান্তি ও সমৃদ্ধির প্রার্থনার মাধ্যমে পবিত্র রমজানকে বিদায় জানান। পবিত্র জুমাতুল বিদার দিবসে গোটা বিশ্বময় ধ্বনিত হয় আল বিদা ইয়া শাহরু রমাদান আল বিদা দারুস সালাম।

হজরত আবু হুরায়রা (রা.) থেকে বর্ণিত- রসুল (সা.) বলেছেন, সূর্যোদয়ের মাধ্যমে যে দিনগুলো হয়, তার মধ্যে জুমার দিন হলো সর্বোত্তম। জুমার দিনে এমন একটি সময় রয়েছে, যখন কোনো মুসলমান নামাজরত অবস্থায় দোয়া করলে অবশ্যই তার দোয়া কবুল করা হয়। (তিরমিজি) ইসলামে জুমার দিনের গুরুত্ব অপরিসীম। পবিত্র রমজান মাসের প্রতিটি জুমার দিনের গুরুত্ব ও ফজিলত আরো বেশি। আরো বেশি ফজিলতপূর্ণ জুমার দিন হলো রমজানের শেষ জুমার দিন। সর্বশেষ জুমাবার। পবিত্র জুমাতুল বিদা। জুমাতুল বিদার মধ্য দিয়ে মূলত পবিত্র রমজানুল মোবারককে বিদায় সম্ভাষণ জানানো হয়।

ইসলামিক ফাউন্ডেশন সূত্র জানায়, পবিত্র জুমাতুল বিদা উপলক্ষে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে দেশ ও জাতির কল্যাণ এবং মুসলিম উম্মাহর ঐক্য ও শান্তি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হবে।

এ ছাড়া দিবসটি উপলক্ষে দেশের প্রায় সব মসজিদেই ধর্মপ্রাণ মুসল্লি­দের ঢল নামে। নিজ নিজ অবস্থান থেকে প্রায় সব মুসলমানই এই দিনকে যথাযথ ধর্মীয় ভাবগাম্ভীর্যের মাধ্যমে উদযাপন করতে সচেষ্ট হন।



মন্তব্য চালু নেই