পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনে তারকা প্রার্থীদের কে জিতলেন কে হারলেন

পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য বিধানসভা নির্বাচনে ভারতীয় জনতা পার্টি (বিজেপি) ও তৃণমূল কংগ্রেস থেকে টালিগঞ্জের এক ঝাঁক তারকা শিল্পী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছেন।

তৃণমূল কংগ্রেসের প্রার্থী হিসেবে নির্বাচিত হয়েছেন চিরঞ্জিত চক্রবর্তী, জুন মালিয়া, কাঞ্চন মল্লিক, সোহম চক্রবর্তী, ব্রাত্য বসু, সায়ন্তিকা বন্দোপাধ্যায় ও রাজ চক্রবর্তী।
আর বিজেপির প্রার্থী হয়ে জিতেছেন একমাত্র হিরণ চট্টোপাধ্যায়।

জোড়াফুল থেকে লড়েছেন চিরঞ্জিত, সোহম, সায়নী ঘোষদের মতো তারকারা; অন্যদিকে ভোটের লড়াইয়ে বিজেপির গেরুয়া শিবিরে ভিড়েছিলেন হালের শ্রাবন্তী, পায়েল, তনুশ্রী, পার্ণো মিত্রদের মতো তারকারা।

ব্যালটের লড়াইয়ে শেষ পর্যন্ত তৃণমূলের প্রার্থীরাই এগিয়ে রয়েছেন। তৃণমূলের প্রার্থীদের মধ্যে বারাসাত থেকে তৃতীয়বারের মতো জয় পেলে অভিনেতা চিরঞ্জিত চক্রবর্তী; ২৬ হাজারেও বেশি ভোট বেশি পেয়ে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।
২০১১ সালে প্রথমবারের মতো তৃণমূলের টিকিটে নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন চিরঞ্জিত; প্রথম নির্বাচনেই জয় পেয়ে মমতার আস্থাভাজন হয়ে উঠেন তিনি। ২০১৬ সালেও নির্বাচিত হন এ অভিনেতা।

তৃণমূলের টিকিটে প্রথম বারের মতো নির্বাচন করেই বাজিমাত করলেন জুন মালিয়া; মেদিনীপুর থেকে নির্বাচিত হয়েছেন তিনি।

উত্তরপাড়া থেকে তৃণমূলের টিকিটে জয় নিশ্চিত করেছেন কাঞ্চন মল্লিক।

ভোটের ব্যবধানে এগিয়ে থেকে জয়ী হয়েছেন তৃণমূলের প্রার্থী চণ্ডিপুর থেকে সোহম চক্রবর্তী, বাঁকুড়া থেকে সায়ন্তিকা বন্দোপাধ্যায়, দমদম থেকে ব্রাত্য বসু ও ব্যারাকপুর থেকে রাজ চক্রবর্তী।

তৃণমূলের প্রার্থীদের মধ্যে আসানসোল দক্ষিণ থেকে সায়নী ঘোষ ও কৃঞ্চনগর উত্তর থেকে কৌশানী মুখোপাধ্যায় পরাজিত হয়েছেন।

বিজেপি থেকে এখন পর্যন্ত একমাত্র প্রার্থী হিসেবে খড়গপুর সদর নির্বাচিত হয়েছেন হিরণ চট্টোপাধ্যায়; যিনি এই নির্বাচনের আগে তৃণমূল থেকে গেরুয়া শিবিরে যোগ দেন। নির্বাচনে তৃণমূল প্রার্থী প্রদীপ সরকারকে ৩ হাজার ১১৯ ভোটে হারিয়েছেন এ অভিনেতা।

বিজেপির প্রার্থী হয়ে পিছিয়ে ছিলেন হালের জনপ্রিয় চার নায়িকা।
বেহালা পূর্ব থেকে পায়েল সরকার, বেহালা পশ্চিম থেকে শ্রাবন্তী চ্যাটার্জি, শ্যামপুর থেকে তনুশ্রী চক্রবর্তী ও বরাহনগর থেকে পার্ণো মিত্র হেরে গেছেন।

বিজেপি থেকে পরাজিত হয়েছেন বাবুল সুপ্রিয়, রুদ্রনীল ঘোষ, যশ দাশগুপ্ত ও লকেট চট্টোপাধ্যায়ও।



মন্তব্য চালু নেই