মেইন ম্যেনু

পাঁচ ঘণ্টার চেষ্টায় পাটের মিলের আগুন নিয়ন্ত্রণে

গাজীপুরের শ্রীপুর পৌর এলাকার কেওয়া বাজারে সোমবার ভোরে সারাহ্ জুট মিলে পাটের কারখানা ও গুডাউনে লাগা আগুন নিয়ন্ত্রণে এসেছে। তবে আগুনে কারখানা শেড এবং ভেতরে থাকা মালামাল ও মেশিনপত্র পুড়ে গেছে।

জয়দেবপুর, শ্রীপুর ও ভালুকা ফায়ার স্টেশনের ৮টি ইউনিট প্রায় পাঁচ ঘণ্টা পর বেলা ১১টার দিকে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনে।

গাজীপুর ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো. আক্তারুজ্জামান বলেন, উপজেলার কেওয়া বাজার এলাকায় সকাল পৌনে ৬টার দিকে সারাহ্ জুট মিলে অগ্নিকাণ্ডের সূত্রপাত হয়। পাট, পাটজাত দ্রব্যাদি, জিও ব্যাগ ও জিও তৈরির ক্যামিকেল থাকায় মুহূর্তের মধ্যে আগুন পুরো শেডে ছড়িয়ে পড়ে। খবর পেয়ে জয়দেবপুর ফায়ার স্টেশনের ৩টি, শ্রীপুর ফায়ার স্টেশনের ৩টি এবং ভালুকা ফায়ার স্টেশনের ২টি ইউনিটের কর্মীরা ঘটনাস্থলে গিয়ে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করেন।

তিনি আরও জানান, পাটের কারখানা থাকা সত্ত্বেও কারখানায় নিজস্ব কোনো পানির রিজার্ভ ট্যাংকি না থাকায় দূর থেকে পানি এনে আগুন নেভাতে অনেকটা বেগ পেতে হয়েছে।

কারখানার সিনিয়র ম্যানেজার জিয়াউল হক খান জানান, কারখানাটিতে মূলত জুট ইয়ার্ন (পাটের সূতা), জিও ব্যাগ ও পাটের বস্তা তৈরি করা হতো। কারখানার ব্রেকার কার্ডের ৮নং মেশিন থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়। বাতাস থাকায় আগুন মুহূর্তেই পাশের গোডাউনের শেডে ছড়িয়ে পড়ে। এতে কারখানা ও দুইটি শেডের ভেতরে থাকা সমস্ত মালামাল পুড়ে যায়। তাৎক্ষণিক ভাবে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ জানাতে পারেননি তিনি।



মন্তব্য চালু নেই