পাকিস্তান ৩৭৮ রানে অলআউট

দ্বিতীয় দিন শেষে পাকিস্তানের স্কোর ছিল ৮ উইকেট ৩০৮ রান। ১১ রান নিয়ে হাসান আলি এবং ৬ রান নিয়ে উইকেটে ছিলেন নুমান আলি। তৃতীয় দিনের শুরুতে হাসান আলি করলেন ২১ রান। নুমান আলি করলেন ২৪ রান। ইয়াসির শাহ অপরাজিত ছিলেন ৩৭ বলে ৩৮ রান।

তৃতীয় দিনের শুরুতে ১২.২ ওভার ব্যাট করে আর যোগ করেন ৭০ রান। শেষ পর্যন্ত ৩৭৮ রান করে অলআউট হয়েছে পাকিস্তান। এর মধ্যে সেঞ্চুরি করেছেন ফাওয়াদ আলম। ১০৯ রান করে আউট হন তিনি। এছাড়া ফাহিম আশরাফ করেন ৬৪ রান, আজহার আলি করলেন ৫১ রান।

প্রোটিয়া পেসারদের মধ্যে কাগিসো রাবাদা এবং কেশাভ মাহারাজ নিয়েছিলেন ৩টি করে উইকেট। অ্যানরিখ নর্তজে এবং লুঙ্গি এনগিদি নেন ২টি করে উইকেট।

করাচি ইন্টারন্যাশনাল স্টেডিয়ামে টস জিতে ব্যাট করতে নেমে দক্ষিণ আফ্রিকা অলআউট হয়েছিলো ২২০ রানে। জবাব দিতে নেমে শুরুতে দারুণ ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়লেও ফাওয়াদ আলমের সেঞ্চুরি এবং আজহার আলির হাফ সেঞ্চুরির ওপর ভর করে ঘুরে দাঁড়ায়। শেষ পর্যন্ত ৩৭৮ রানে অলআউট হয়েছে পাকিস্তান।

এর ফলে দক্ষিণ আফ্রিকার সামনে ১৫৮ রানের লিড দাঁড় করিয়েছে পাকিস্তান। দ্বিতীয় ইনিংসে পিছিয়ে থেকে ব্যাট করতে নেমে এরই মধ্যে ৯ ওভার শেষে কোনো উইকেট না হারিয়ে ২৬ রান সংগ্রহ করেছে দক্ষিণ আফ্রিকা। ১২ রান করেছেন এইডেন মারক্রাম এবং ১২ রান করেছেন ডিন এলগার।



মন্তব্য চালু নেই