শিরোনাম:

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় শ্বশুর-শ্বাশুড়ীর নির্যাতনে গৃহবধূর মৃত্যু

পাবনার ভাঙ্গুড়ায় শ্বশুর শ্বাশুরীর নির্যাতনে নাছিমা (২৬) নামের এক গৃহবধুর মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (১২ অক্টবর) বিকেল চার টার দিকে পাবনা সদর হাসপাতালে তার মৃত্যু হয়। গৃহবধু উপজেলার দিলপাশার ইউনিয়নের পুইবিল গ্রামের মোঃ আশরাফের ছেলে মোঃ হাফিজুলের স্ত্রী ও এক সন্তানের জননী। জানা যায়, ৭ বছর পূবে হাফিজুলের সাথে একই উপজেলার সদর ইউনিয়নের ভবানিপুর গ্রামের মোঃ আব্দুল ছাত্তার মোল্লার মেয়ের বিবাহ হয়। বিয়ের পর থেকেই নাছিমার উপর শুরু হয় শারিরীক নির্যাতন।

এনিয়ে গ্রামে ও ইউনিয়ন পরিষদে একাধিক বার দরবার সালিশ করেও ঐ গৃহবধুকে তার শ্বশুর শ্বাশুরীর নির্যাতনে হাত থেকে রক্ষা করতে পারেনি। মঙ্গলবার দুপুরে গৃহবধুর স্বামী হাফিজুল ভ্যান চালিয়ে বাড়ি ফিরে দেখে নাছিমা ঘরের মধ্যে অজ্ঞান হয়ে পরে আছে। এসময় হাফিজুল তার বাবা মাকে ডাকা ডাকি করলে তারা এগিয়ে আসেনা। এসময় হাফিজুল নাছিমার মুখ থেকে বিষের গন্ধ পায়।

ভাঙ্গুড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে সে গ্যাস ট্যাবলেট খেয়েছে বলে কর্তব্যরত চিকিৎসক প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে পাবনা সদর হাসপাতালে প্রেরণ করেন। পাবনা সদর হাসপাতালে ভর্তির কিছু সময় পর বিকেল ৪ টার দিকে তার মৃত্যু হয়। গৃহবধুর স্বামী হাফিজুল বলেন, আমার বাবা ও মায়ের অমানুষিক নির্যাতনের কারণে আমার স্ত্রীর মৃত্যু হয়। ভাঙ্গুড়া থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) মুঃ ফয়সাল বিন আহসান বলেন, এ বিষয়ে গৃহবধুর ভাই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছে, ময়না তদন্ত রিপোট পেলে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।