শিরোনাম:

কুড়িগ্রামে নির্বাচনী জেরে বাড়ীঘরে হামলা লুটপাট

প্রাণনাশের হুমকীতে ভুক্তভোগীদের সংবাদ সম্মেলন

কুড়িগ্রাম সদর উপজেলার যাত্রাপুর ইউনিয়নের ব্রহ্মপূত্র নদ বেষ্টিত দুর্গম চরাঞ্চল কালির আলগা গ্রামে বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনা ঘটেছে।

এঘটনায় ভুক্তভোগী পরিবারের পক্ষ থেকে শনিবার (১৯ নভেম্বর) দুপুরে কুড়িগ্রাম প্রেসক্লাবস্থ সৈয়দ শামসুল হক মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়। অনুষ্ঠানে জেলার প্রিন্ট ও উলেকট্রনিক মিডিয়ার প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করা হয়, চলতি মাসের ৭ নভেম্বর যাত্রাপুর ইউনিয়নের ৮নং ওয়ার্ডের নবনির্বাচিত মেম্বার আনোয়ার হোসেন প্রামাণিক ও তার সঙ্গীয় সন্ত্রাসীরা সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় সময় একই এলাকার মন্ডলপাড়া গ্রামের নুর আলমসহ তার পরিবারের উপর সন্ত্রাসী হামলা চালায়। সন্ত্রাসীরা বাড়ীর সদস্যদের হাত-পা বেঁধে, বাড়ীঘরে হামলা, লুটতরাজ ও হত্যার উদ্দেশ্যে রক্তাক্ত যখম করে। এসময় বাড়ীতে রাখা ৮টি ফার্মের গরু বিক্রির ৬লক্ষ ৪০হাজার টাকা, ৩টি দেশী গরু, ১টি বাছুর, ৩টি খাসিসহ আরো প্রায় ৩ লক্ষ টাকার মালামাল লুট করে নিয়ে যায়। এসময় পরিবারের ৬জন সদস্য রক্তাক্ত যখম হয়। বিগত নির্বাচনে সংরক্ষিত মহিলা আসনের প্রার্থী নুর আলমের স্ত্রী আন্না খাতুনের কাছে নির্বাচনী বাবদ ৫লক্ষ টাকা পাওনা আছে এমন কথা ছড়িয়ে এলাকার চিহ্নিত সন্ত্রাসী ও জলদস্যু আনোয়ার হোসেন প্রামাণিক চাঁদা না পেয়ে ভীতি ছড়াতে এই ধরনের ঘটনা ঘটিয়েছে বলে সংবাদ সম্মেলনে উল্লেখ করা হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করে শোনান নুর আলমের ছোট ভাই এরশাদুল হক। এসময় তার পরিবারের লোকজনসহ এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিগণ উপস্থিত ছিলেন।