শিরোনাম:

প্রাণ গেল ভাতিজারও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট চাচাকে বাঁচাতে গিয়ে

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগরে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে গোলাম মোস্তফা (৭০) ও মো. জসু মিয়া (৬৫) নামের দুইজন নিহত হয়েছেন।

বুধবার (২০ জানুয়ারি) ভোরে উপজেলার বড়িকান্দি ইউনিয়নের বড়িকান্দি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত গোলাম মোস্তফা বড়িকান্দি গ্রামের পশ্চিমপাড়ার মৃত আব্দুল বারেকের ছেলে ও জসু মিয়া মৃত সাঈদ উদ্দিনের ছেলে। নিহতরা সম্পর্কে চাচা-ভাতিজা।

নবীনগর থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. মামুনুর রশীদ জানান, আনুমানিক ভোর সোয়া ৪টার দিকে গোলাম মোস্তফার একটি টিনের ঘরে বৈদ্যুতিক মিটার থেকে আগুন লাগে। তবে সেই ঘরে তখন কেউ ছিল না।

এ সময় গোলাম মোস্তফা ঘরে আগুন লেগেছে দেখে ঘরের কাছে গেলে বৈদ্যুতিক তারে জড়িয়ে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। গোলাম মোস্তফাকে স্ত্রী রাশেদা বেগম মাটিতে পড়ে থাকতে দেখে ভাতিজা জসু মিয়াকে ডেকে আনেন। তখন তিনি চাচাকে মাটি থেকে উঠাতে গেলে তিনিও বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মারা যান।

বড়িকান্দি ইউপি চেয়ারম্যান আনোয়ার পারভেজ বলেন, ‘আগুন লাগা ঘরটিতে গোলাম মোস্তফার ছেলে তার স্ত্রীকে নিয়ে থাকতেন। ওই ছেলে গাজীপুরের টঙ্গীতে ফলের ব্যবসা করেন। ঘটনার খবর পেয়ে সকালে ঘটনাস্থলে গিয়েছি। বৈদ্যুতিক মিটার থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে একটি তার মাটিতে পড়েছিল। সেই তারের মাধ্যমেই বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে চাচা-ভাতিজার মৃত্যু হয়েছে’।



মন্তব্য চালু নেই