শিরোনাম:

প্রায়ই মাথাব্যথা, কেন হয় জানেন কি?

আমাদের অনেকের প্রায়ই মাথা ব্যাথা থাকে। অসহ্য যন্ত্রনায় কোনো কাজে মন বসে না তখন। কিন্তু; জানেন কি -কিসের অভাবে এমন সমস্যা হয়? শরীরে কিসের অভাব ঘটলে এই ধরনের শারীরিক অস্বস্তি দেখা দেয়?

শরীরে আয়রনের ঘাটতি ইদানীং একটি বিরাট সমস্যা হয়ে দাঁড়িয়েছে। অনেকেই শরীরে আয়রনের অভাবে নানা রোগে ভুগে থাকেন। বিশেষ করে মহিলাদের মধ্যে এই ধরনের সমস্যা আরও বেশি দেখা যায়।

পর্যাপ্ত আয়রনের অভাবে মানব শরীরের স্বাভাবিক কার্যকলাপ বিঘ্নিত হয়। শরীরে আয়রনের ঘাটতি হলে রক্তস্বল্পতার মতো সমস্যাও দেখা যায়।

কিন্তু সমস্যা হচ্ছে, দেহে আয়রনের অভাব ঘটছে-এই ব্যাপারটা প্রাথমিকভাবে অনেকেই বুঝতে পারেন না। তবে কিছু লক্ষণ দেখে সহজেই তা নির্ধারণ করা যায়। কোনও রোগ যদি প্রাথমিক অবস্থাতেই চিহ্নিত করা যায়, তবে আগেভাগে সুরক্ষা নেওয়া সম্ভব হয়।

চলুন দেখে নেই কোন লক্ষণগুলি দেখে বুঝবেন শরীরে আয়রনের ঘাটতি রয়েছে কি না-

১) অত্যধিক ক্লান্তি

অনেকেই সঠিক সময়ে খাওয়া, বিশ্রাম নেওয়া, পর্যাপ্ত ঘুমোনোর মতো দৈনন্দিন ক্রিয়াকলাপগুলি স্বাভাবিক থাকা সত্ত্বেও অতিরিক্ত ক্লান্তি অনুভব করেন। শরীরে আয়রনের ঘাটতি থাকলে তবে এমনটা হতে পারে। আয়রনের অভাবে শরীরের প্রতিটি অঙ্গে পর্যাপ্ত অক্সিজেন পৌঁছায় না। ফলে মাঝেমাঝেই ক্লান্ত লাগে।

২) মাথাব্যথা

শরীরে আয়রনের পরিমাণ কম থাকলে মস্তিষ্ক-সহ শরীরের বিভিন্ন অংশে অক্সিজেন সরবরাহ কমতে থাকে। মস্তিষ্কে অক্সিজেনের অভাবে মাথা ঘোরা, মাথাব্যথা, শারীরিক অস্বস্তি বাড়ে। এমনকি, ঋতুস্রাব চলাকালীন মহিলাদের মাইগ্রেনের সমস্যাও দেখা দিতে পারে।

৩) নখ ভেঙে যাওয়ার প্রবণতা

নখ একটু বড় হতে না হতেই ভেঙে যায়? আয়রনের অভাবে এমন হতে পারে। আয়রন নখের যত্ন নেয়। তবে স্বাভাবিকের তুলনায় শরীরে আয়রনের পরিমাণ কম থাকলে নখ দুর্বল হয়ে ভেঙে যেতে পারে। সূত্র : আনন্দবাজার