মেইন ম্যেনু

পড়ে আছে দুই বাংলাদেশীর লাশ, চেয়ে দেখছে বিএসএফ

ঝিনাইদহ: জেলার মহেশপুর উপজেলার খোসালপুর সীমান্তের ওপারে কুমারীপাড়ায় নিহত দুই বাংলাদেশির লাশ ফেরত দেয়নি ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)।

লাশ ফেরত চেয়ে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশের (বিজিবি) পক্ষ থেকে পাঠানো পতাকা বৈঠকের ব্যাপারেও কোনো সাড়া দেয়নি বিএসএফ।

বুধবার (২১ জুন) দুপুরে খোসালপুর বিজিবি বিওপির কোম্পানি কমান্ডার আবু তাহের জানান, মঙ্গলবার (২০ জুন) এক দফায় কোম্পানি কমান্ডার পর্যায়ে চিঠি দেয়া হলে বিএসএফ সেটি গ্রহণ করেনি।

বুধবার মহেশপুর-৫৮ বিজিবির অধিনায়কের পক্ষ থেকে ফের ভারতীয় বিএসএফের নবম ব্যাটালিয়ান কমান্ডারকে লাশ ফেরত চেয়ে পতাকা বৈঠকের জন্য চিঠি দেয়া হয়েছে। দুপুর ১টা পর্যন্ত বিএসএফ ওই চিঠির উত্তর দেয়নি।

বিজিবি পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, পতাকা বৈঠকের পরই এ ব্যাপারে সবকিছু জানানো হবে।

এ ব্যাপারে মহেশপুর থানান ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আহমেদুল কবীর বলেন, বিজিবির অনুরোধে লাশ গ্রহণের জন্য সব ধরনের প্রস্তুতি নিয়ে রাখা হয়েছে। তবে পতাকা বৈঠক কখন হবে তা জানা নেই বলে জানান তিনি।

মঙ্গলবার (২০ জুন) মহেশপুর উপজেলার খোসালপুর সীমান্তের ওপারে কুমারীপাড়ায় খোসালপুর গ্রামের শহিদুল ইসলামের ছেলে সোহেল রানা (১৯) এবং উপজেলার শ্যামকুড় গ্রামের কাওসার আলীর ছেলে হারুন অর রশিদকে (৩০) গুলি করে হত্যা করে ভারতীয় সীমান্ত রক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)।



মন্তব্য চালু নেই