শিরোনাম:

ফরিদপুরের সালথায় তাণ্ডব: ৫ মামলায় আসামি ১৬ হাজার ৮০০

ফরিদপুরের সালথা উপজেলা পরিষদসহ বিভিন্ন স্থানে তাণ্ডবের ঘটনায় এ পর্যন্ত ৫টি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (৮ এপ্রিল) রাতে সালথা থানায় নতুন আরো ৪টি মামলা রুজু করা হয়।

এর আগে পুলিশ বাদী হয়ে ১টি মামলা করেছিল। পাঁচটি মামলায় মোট আসামি করা হয়েছে ১৬ হাজার ৮০০ জনকে। এদের মধ্যে ২৬১ জনের নাম উল্লেখ করা হয়েছে। বাকিদের অজ্ঞাত আসামি হিসেবে দেখানো হয়েছে।

নতুন যে চারটি মামলা করা হয়েছে তার মধ্যে মুক্তিযোদ্ধা কমপ্লেক্সে হামলার ঘটনায় বীর মুক্তিযোদ্ধা বাচ্চু মাতুব্বর বাদী হয়ে একটি মামলা করেছেন।
অন্যদিকে, সালথা উপজেলা নির্বাহী অফিসারের গাড়ি চালক মো. হাশমত আলী, এসিল্যান্ডের নিরাপত্তা রক্ষী সমির বিশ্বাস, এসিল্যান্ডের গাড়িচালক সাগর সিকদার মামলা দায়ের করেন।

এর আগে পুলিশের এসআই মিজানুর রহমান বাদী হয়ে আরেকটি মামলা করেন।

মামলার তথ্য নিশ্চিত করে অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জামাল পাশা জানান, ৫টি মামলা থানায় রুজু হয়েছে। ৩৬ জনকে আটক করা হয়েছে। বাকি আসামিদের আটকের চেষ্টা চলছে।

৫ এপ্রিল লকডাউনের প্রথম দিনে সালথা এসিল্যান্ড মারুফা সুলতানা একটি বাজারে গেলে সেখানে ব্যবসায়ীদের সঙ্গে বাদানুবাদের ঘটনা ঘটে। পরে কয়েক হাজার মানুষ বিক্ষোভ করে সালথা উপজেলা পরিষদসহ বিভিন্ন স্থানে হামলা চালিয়ে ব্যাপক ভাঙচুর করে। আগুন দিয়ে পুড়িয়ে দেয় বেশকিছু দফতর।



মন্তব্য চালু নেই