শিরোনাম:

ফিটনেস : ডায়াবেটিক রোগীদের জন্য ব্যায়াম

শরীরকে সুস্থ রাখতে ব্যায়ামের বিকল্প নেই। রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখতেও ব্যায়াম প্রয়োজন, বিশেষ করে ডায়াবেটিক রোগীদের। ডায়াবেটিস এমন একটি রোগ, যা জীবনকে দুর্বিষহ করে তোলে। অথচ কিছু নিয়ম পালন করলে এ রোগ নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। নিয়মিত ব্যায়াম, ওজন নিয়ন্ত্রণ, নিয়মিত পরীক্ষা-নিরীক্ষা এবং সে মতো ব্যবস্থা গ্রহণে এ রোগকে নিয়ন্ত্রণে রাখা যায়। এসবের নিয়ম-কানুনের মধ্যে সবার ওপরে থাকবে নিয়মিত ব্যায়াম।

কেন ব্যায়াম প্রয়োজন : ডায়াবেটিক রোগীদের কয়েকটি কারণে ব্যায়াম প্রয়োজন। এর মধ্যে অন্যতম হচ্ছে রক্তে শর্করা নিয়ন্ত্রণে রাখা। দ্বিতীয়ত ওজন ঠিক রাখা। তা ছাড়া মনে রাখা প্রয়োজন, নিয়মিত ব্যায়াম হার্টের সমস্যা থেকে দূরে রাখতে সহায়তা করে। তবে ব্যায়াম সবচেয়ে উপকারী টাইপ টু ডায়াবেটিক রোগীদের জন্য। কেননা ব্যায়াম শরীরের ওজনের ভারসাম্য রাখতে সহায়তা করে।

কী ধরনের ব্যায়াম করা প্রয়োজন : ফিটনেস বিশেষজ্ঞদের মতে, ওজন তোলা, দৌড়, কিক বক্সিং ধরনের ব্যায়াম সবচেয়ে উপকারী।

সুগার লেভেল ঠিক রাখা : ডাক্তারের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যায়াম করা উচিত। যদি ব্যায়ামের জন্য ডাক্তারের কাছ থেকে সবুজ সংকেত পাওয়া যায়, তাহলেই আপনার ব্যায়াম করা উচিত। যদি ব্যায়ামের সময় কখনো দুর্বলতা অনুভব করেন, হার্টের কম্পন স্বাভাবিকের চেয়ে দ্রুতগতিতে লাফাতে থাকে, স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি ঘাম হতে থাকে, তাহলে তখনই ব্যায়াম বন্ধ করে দেওয়া উচিত। সেই সঙ্গে প্রচুর পানি পান করতে হবে।

পরামর্শ

১. ব্যায়ামের সময় যদি ব্যথা অনুভূত হয়, তাহলে সঙ্গে সঙ্গে ব্যায়াম বন্ধ করে দিতে হবে। কেননা কোনো টিস্যু ক্ষতিগ্রস্ত হয় এমন কোনো ঝুঁকি নেওয়া যাবে না।

২. ব্যায়ামের আগে ও পরে রক্তে শর্করার পরিমাণটা জেনে রাখা দরকার।

৩. কখনো যদি রক্তে শর্করার পরিমাণ কমে যাওয়ার আশঙ্কা থাকে, তাহলে হাতের কাছে কিছু খাবার সংরক্ষিত রাখার বিষয়টি নিশ্চিত করা উচিত।

৪. অনুশীলনের সময় আরামদায়ক জুতা ব্যবহার করা ভালো।