ফের গণনা হতে পারে নন্দীগ্রামের ভোট

পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনে সবথেকে গুরুত্বপূর্ণ আসন নন্দীগ্রামে মমতাকে হারিয়ে জয়ী হয়েছেন শুভেন্দু অধিকারী, এমন খবর দিয়েছে দেশটির গণমাধ্যম।এর আগে এই আসনে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জয়ের খবরও জানায় পত্রিকাগুলো।এবার নন্দীগ্রাম আসনটির ফল নিয়ে তৈরি হল চরম নাটকীয়তা।

ভোটগণনা ঘিরে বিভ্রান্তির কারণে আপাতত ফলাফল ঘোষণা স্থগিত করা হয়েছে নন্দীগ্রামে। নতুন করে গণনা হতে পারে ভোট। এ ব্যাপারে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন রিটার্নিং অফিসার। রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক আরিজ আফতাব এমন খবর দিয়েছেন।

আফতাবের বরাতে আনন্দবাজার জানিয়েছে, ‘আপাতত জয়ী শুভেন্দু অধিকারী। পুনরায় গণনার ব্যাপারে এখনও কোনও আবেদন আসেনি। তা হবে কি না ঠিক করবেন রিটার্নিং অফিসার। এটা আংশিক না সম্পূর্ণ গণনা হবে সেটাও তিনি ঠিক করবেন।’

রোববার (২ মে) রাজ্যের ২৯২টি আসনে পর পর ফল প্রকাশিত হলেও, নন্দীগ্রাম ঘিরে দুপুর থেকেই বিভ্রান্তি। ১৭ রাউন্ড ভোটগণনার পর সেখানে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জয়ী হয়েছেন বলে খবর আসছিল। কিন্তু সন্ধ্যা গড়াতে মমতার জয় নিয়ে প্রশ্ন উঠতে শুরু করে। বলা হয়, সার্ভারে সমস্যার জেরে সঠিক ভাবে কিছু জানা যাচ্ছে না।

তার পরেই শুভেন্দু অধিকারীর জয়ের খবর আসে। এ নিয়ে শুভেন্দু বলেন, ১৬২২ ভোটে জিতেছি আমি। তার পর সাংবাদিক বৈঠকে নন্দীগ্রামে হেরে গিয়েছেন বলে জানান মমতাও। তিনি বলেন, ‘নন্দীগ্রাম যা রায় দেব, মাথা পেতে নেব।’

মমতা বলেন, আমার কাছে অভিযোগ রয়েছে, রায় ঘোষণার পর কারচুপি হয়েছে। আদালতে যাব। এর কিছু পরে টুইট করে তৃণমূলের তরফে জানানো হয়, নন্দীগ্রামে গণনা এখনও চলছে। কোনও রকম জল্পনায় কান না দেওয়ার জন্য অনুরোধও করা হয়। তার পরেই রাজ্যের মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক পুনর্গণনা হতে পারে বলে জানান।



মন্তব্য চালু নেই