শিরোনাম:

ফ্রান্সের জাতীয় দলে না খেলার খবর ভুয়া : পগবা

ফ্রান্সের মিডফিল্ডার পল পগবা দেশের হয়ে আর খেলবেন না বলে যে খবর প্রকাশিত হয়েছে তা সত্য নয়। আজ সোমবার নিজের ইনস্টাগ্রামে এক পোস্টে পগবা নিজেই বিষয়টি দাবি করেছেন। এমন খবরে তিনি ক্ষুব্ধ বলেও উল্লেখ করেছেন।

ফ্রান্সের প্রেসিডেন্ট এমানুয়েল মাখোঁ জঙ্গিবাদের জন্য ইসলামকে দায়ী করে এবং হয়রত মোহাম্মদ (স.) কে নিয়ে কটূক্তি করে একটি বিবৃতি দেন। ওই বিবৃতির প্রতিবাদে ইসলাম ধর্মের অনুসারী পগবা অবসরের সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে দাবি করা হয়। এমনকি ব্রিটিশ সংবাদ মাধ্যম দ্য সানও এমন খবর প্রকাশ করে।

বিষয়টি নিয়ে ক্ষুব্ধ হয়ে পগবা ইনস্টাগ্রামে লিখেছেন, ‘আমার ধর্ম হলো শান্তি ও ভালোবাসার এবং অন্যের প্রতি সম্মান দেখাবার। সংবাদ মাধ্যমের কিছু ব্যক্তিত্ব খবরটা এভাবে প্রকাশ করে দায়িত্ববোধের পরিচয় দেননি। সংবাদ মাধ্যমের স্বাধীনতার পরিপন্থি কাজ করেছেন। সত্যতা নিশ্চিত না করে এভাবে একটা খবর প্রকাশ করা অনেকের পাশাপাশি আমার এবং আমার পরিবারের জন্য ক্ষতির কারণ। শতভাগ মিথ্যা এই সংবাদ এবং সংবাদ মাধ্যমের প্রকাশকের বিরুদ্ধে আমি আইনি ব্যবস্থা নেব।’

প্রসঙ্গত, ইসলাম ধর্মের নবী হয়রত মোহাম্মদ (স.) এর কার্টুন ক্লাসে দেখানোয় এক ফরাসি শিক্ষককে হত্যা করা হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে চলতি সপ্তাহে ইসলামের সঙ্গে জঙ্গীবাদকে সম্পৃক্ত করে মন্তব্য করেন ফ্রান্স প্রেসিডেন্ট ম্যাক্রোঁ। ফ্রান্স ওই কার্টুন প্রত্যাহার করবে না বলেও জানান তিনি। এরই জেরে ফ্রান্স প্রেসিডেন্টের মন্তব্যের প্রতিবাদ স্বরূপ পগবা ফ্রান্সের হয়ে না খেলার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বলে ভুয়া খবরটি ছড়ানো হয়।



মন্তব্য চালু নেই