প্রধান ম্যেনু

বইমেলায় সাড়া জাগিয়েছে ছোটদের গল্পের বই ‘ভূত যখন বিজ্ঞানী’

এবারের অমর একুশে বইমেলার প্রথম দিনে প্রকাশিত হয়েছে শাম্মী তুলতুলের ছোটদের গল্পের বই “ভূত যখন বিজ্ঞানী”। বইটি প্রকাশ করেছে স্বনামধন্য প্রকাশনী প্রতিভা প্রকাশ। স্টল নাম্বার ২০৪, ২০৫, ২০৬। বইয়ের দাম ১৫০ টাকা। প্রচ্ছদ করেছেন- নিসা মেহজাবীন। বইটি বইমেলা ছাড়াও অনলাইন বইয়ের বাজার রকমারি ডটকম, বইবাজার ডটকম সহ সকল অনলাইনে পাওয়া যাচ্ছে ২৫% ছাড়ে।

শাম্মী তুলতুলের ‘ভূত যখন বিজ্ঞানী’ বইটি ইতোমধ্যে বইমেলায় বেশ সাড়া জাগিয়েছে। মেলার শিশুপ্রহরে শিশু-কিশোরদের মধ্যে বইটির চাহিদা বেশি দেখা গেছে।

বইটিতে মুক্তিযুদ্ধের গল্প সহ মোট ১১টি গল্প রয়েছে।

শাম্মী তুলতুল জানান, প্রতিটি গল্প উপন্যাসে তিনি একটি করে ম্যাসেজ রাখেন। যাতে হাস্যরসের সাথে সাথে সবাই শিক্ষণীয় বিষয়ও মাথায় রাখতে পারে। এবারের বইটিও প্রতিবছরের মতো পাঠকদের ভালোবাসা আশা করেন।

শাম্মী তুলতুল বাংলাদেশের জনপ্রিয় লেখকদের মধ্যে অন্যতম। তিনি একাধারে লেখক, ঔপন্যাসিক, শিশুসাহিত্যিক, আবৃত্তিশিল্পী, ব্র্যান্ড এম্বাসেডর পাঠাগার আন্দোলন বাংলাদেশ, বাংলাদেশ বেতার চট্টগ্রাম কেন্দ্রের অনুষ্ঠান পরিচালক, ও ঢাকার মেয়র হানিফ স্মৃতি সংসদের সাহিত্য সম্পাদিকা এবং দাবা খেলোয়াড় হিসেবেও তিনি পরিচিত।

বর্তমানে বেস্ট সেলার তালিকায় তার নাম অন্তর্ভুক্ত। ভারত- বাংলাদশ দুই বাংলার জনপ্রিয় লেখিকার তকমাটাও এখন তার সফলতার ঝুড়িতে।

মুক্তিযুদ্ধের উপন্যাস চোরাবালির বাসিন্দা, পদ্মবু, উপন্যাস একজন কুদ্দুস ও কবি নজরুল, ছোটোদের বই নানটুঁ ঝান্টূর বক্স রহস্য, গণিত মামার চামচ রহস্য, পিঁপড়ে ও হাতির যুদ্ধ, দৈত্য হবে রাজা, কচ্ছপ রাজার রাজপ্রাসাদ এই বইগুলো তাকে নিয়ে গেছে সফলতার শীর্ষে। জায়গা করে নিয়েছে সে পাঠক হৃদয়ে।এই পর্যন্ত বইয়ের সংখ্যা ১৪টি।

চট্টগ্রামের মেয়ে তুলতুল আঞ্চলিক পত্রিকা ছাড়িয়ে জাতীয় পত্রিকা ও দেশের বাইরের সকল পত্রিকায় লিখালিখা করে দুর্দান্ত রেকর্ড গড়েছে। শিশুসাহিত্যে অবদানের জন্য ইতিমধ্যে পেয়েছে কবি নজরুল অগ্নিবীণা সাহিত্য পুরস্কার, রোটারিয়ান পুরস্কার, সোনার বাংলা সাহিত্য সন্মাননা সহ আরও অন্যান্য সন্মাননা। তাছাড়া তিনি সেই বুক এবং বাংলালিংক বই ঘর এপসের সাথেও চুক্তিবদ্ধ হয়েছেন।

বিশ্বের কালজয়ী লেখদের সাথে সাথে তার বইও যেকোনো প্রান্ত থেকে পড়তে পারবেন পাঠকরা। তিনি পাঠাগার আন্দোলন বাংলাদেশের ব্র্যান্ড এম্বাসেডর হিসেবে কাজ করে যাচ্ছেন, পাশাপাশি বাংলাদেশ বেতার ও চট্টগ্রাম কেন্দ্রের অনুষ্ঠান গ্রন্থনা ও নিয়মিয় আবৃত্তিশিল্পী হিসেবেও বেশ সুনাম কুড়িয়েছেন। তিনি ঢাকার প্রথম মেয়র হানিফ স্মৃতি সংসদের সাহিত্য সম্পাদিকা হিসেবেও সম্পৃক্ত রয়েছেন।

ইতিমধ্যে ফ্যাশন সচেতন কন্যা হিসেবেও তিনি সবার নজর কেড়েছেন। প্রায়ই তাদের পারিবারিক এবং দেশীয় পোশাক জামদানী পোশাক পরিধান করে থাকেন তিনি। তার ভাষ্য প্রতিটি মানুষকে বিশেষ করে ক্রিয়েটিভ যারা তারা বিদেশ বা বিদেশী কোন পণ্যের প্রতি না ঝুকে নিজের দেশের প্রতিটি বিষয় যেন তুলে ধরে। কারণ আমাদের দেশ অনেক অনেক সুন্দর।

উল্লেখ্য যে একটি সাহিত্য, সাংস্কৃতিক, রাজনৈতিক, মুক্তিযোদ্ধা ও অভিজাত পরিবারে শাম্মী তুলতুলের জন্ম।তাই লেখালেখি তার রক্তে, মুক্তিযুদ্ধ তার চেতনায়। বিশ্বের দরবারে নিজ লেখনি দিয়ে নিজের দেশকে এবং নিজেকে সভ্য হিসেবে উপস্থাপন করতে তুলতুল বদ্ধ পরিকর।



মন্তব্য চালু নেই