মেইন ম্যেনু

বঙ্গবন্ধু সেতুতে হঠাৎ ট্রাক প্রতি ৩শ’ টাকা টোল বৃদ্ধি

হঠাৎ করেই বঙ্গবন্ধু সেতুতে ট্রাক প্রতি টোল আদায় বৃদ্ধি করা হয়েছে। যেখানে দুইদিন আগেও ট্রাক প্রতি টোল আদায় হতো ১১শ’ টাকা। রোববার থেকে ট্রাক প্রতি ১৪শ’ টাকা আদায় করছে সেতুতে টোল আদায়ে নিয়োজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কমিউটার নেটওয়ার্ক সিস্টেম (সিএনএস) কর্তৃপক্ষ। অঘোষিত এই বাড়তি টোল আদায়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন চালকরা।

চালকদের অভিযোগ, বঙ্গবন্ধু সেতুতে টোল আদায়ে নিয়োজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান কমিউটার নেটওয়ার্ক সিস্টেম (সিএনএস) অস্থায়ীভাবে সেতুর টোল আদায় করছে। টোল আদায় নিয়ে বিভিন্ন সময় অনিয়ম ও টোল বৃদ্ধির অভিযোগ উঠলেও কোম্পানির বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা গ্রহণ করেনি বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষ (বিবিএ)। এর আগে সেতুতে টোল চুরি ও অনিয়ম নিয়ে বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রতিবেদনও প্রকাশিত হয়েছে।

রোববার কোনো কারণ দর্শানো ছাড়াই সেতুতে ট্রাক প্রতি ৩শ’ টাকা হারে টোল বৃদ্ধি করা হয়েছে। এ কারণে চালক ও টোল অপারেটররা বাগবিতণ্ডায় জড়িয়ে যাচ্ছেন। বিকেলে আকিজ গ্রুপের কয়েকটি ট্রাক চালকদের সঙ্গে টোল অপারেটরদের বাড়তি টোল আদায় নিয়ে বাগবিতণ্ডা শুরু হয়। তবে উচ্চ পর্যায় থেকে এ টোল আদায় বৃদ্ধি করা হয়েছে মর্মে চালকদের জানানো হয়। এর ফলে বাধ্য হয়ে চালকরা বাড়তি ৩শ’ টাকা দিয়ে সেতু পার হচ্ছে।

এ নিয়ে আকিজ গ্রুপের পরিবহন (ঢাকা মেট্রো-১৪-৯১৮৬) ট্রাক চালক সাগর জানান, প্রতিনিয়ত ঢাকা হতে উত্তরবঙ্গের দিকে যাচ্ছি। গত শুক্রবার দুপুরে ১১শ’ টাকা টোল দিয়ে সেতু পাড় হয়েছি। আজকে (রোববার) সেতু পার হতে ১৪শ’ টাকা দাবি করা হয়। তাও আবার টোলের টোকেনে ট্রাকের নম্বর লেখা নেই। গাড়ির নম্বর থাকলেও টোকেনে আন-রেজিস্ট্রার লেখা রয়েছে। টোল অপারেটরকে অতিরিক্ত টাকার বিষয়ে জিজ্ঞাসা করা হলে বিবিএ থেকে এ টোল বৃদ্ধি করা হয়েছে বলে জানান তারা। বাধ্য হয়েই এ বাড়তি টাকা দিয়ে সেতু পাড় হতে হচ্ছে।

টোল আদায়ে নিয়োজিত ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের টোল ম্যানেজার আমিনুর রহমানের মোবাইল নম্বরে একাধিবার ফোন করেও তার বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এ প্রসঙ্গে বাংলাদেশ সেতু কর্তৃপক্ষের (বিবিএ) বঙ্গবন্ধু সেতু সাইট অফিসের তত্ত্বাবধায়ক প্রকৌশলী তোফাজ্জল হোসেন জানান, সেতুতে কোনো প্রকার টোল বৃদ্ধি করা হয়নি।

তিনি আরও জানান, বিআরটিএ’র ডাটাবেইজের মাধ্যমে টোল আদায় করা হচ্ছে। হয়তো তারা ভুয়া কাগজ ব্যবহার করছে। তারপরও কেন তারা বেশি নিচ্ছে সেই বিষয়ে টোল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করার কথা জানান তিনি।



মন্তব্য চালু নেই