মেইন ম্যেনু

স্থগিত চান জাপা ও বাসদ প্রার্থী

বরিশালে বিএনপিসহ ৩ প্রার্থীর ভোট বর্জন

বরিশাল সিটি করপোরেশন নির্বাচনে ভোট গ্রহণ স্থগিত করার দাবি জানিয়েছে জাতীয় পার্টির (জাপা) মনোনীত প্রার্থী মো. ইকবাল হোসেন ও বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) মনোনীত প্রার্থী মনীষা চক্রবর্তী। সোমবার দুপুর পৌনে ১টার দিকে জাতীয় পার্টির (জাপা) মনোনীত প্রার্থী মো. ইকবাল হোসেন ও সোয়া ১টার দিকে বাংলাদেশ সমাজতান্ত্রিক দলের (বাসদ) মনোনীত প্রার্থী মনীষা চক্রবর্তী রিটানিং কর্মকর্তা বরাবর এই আবেদন করেন। বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি মনোনীত প্রার্থী আবুল কালাম দুপুরে সংবাদ সম্মেলন করে ভোট বর্জন করেছেন। এর আগে বরিশালে বিএনপির মেয়র প্রার্থী মজিবর রহমান সরওয়ার সংবাদ সম্মেলন করে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন। ইসলামী আন্দোলন প্রার্থী ওবায়দুর রহমানও অনিয়ম ও কারচুপির অভিযোগে ভোট বর্জনের ঘোষণা দেন।

জাতীয় পার্টির (জাপা) মনোনীত প্রার্থী মো. ইকবাল হোসেন আবেদনে উল্লেখ করেন, তিনি বিভিন্ন কেন্দ্র পরিদর্শন করে দেখেছেন, বহিরাগত আওয়ামী লীগের লোকজন প্রশাসনের সহায়তায় মেয়র প্রার্থীর ব্যালট পেপার ছিনিয়ে নিয়ে নৌকায় সিল দিয়েছে এবং পোলিং এজেন্টদের বের করে দেওয়া হয়েছে। তিনি ১২৩টি ভোট কেন্দ্রে গ্রহণ করা সব ভোট বাতিলসহ স্থগিত করার দাবি জানান।

একই দাবিতে করা একটি আবেদন মনীষা চক্রবর্তী রিটানিং কর্মকর্তা বরাবর জমা দিয়েছে। পরে তিনি সংবাদ সম্মেলন করে বিস্তারিত জানাবেন বলে জানান।

এদিকে বাংলাদেশ কমিউনিস্ট পার্টি মনোনীত প্রার্থী আবুল কালাম আজাদ বরিশাল প্রেস ক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করে ভোট গ্রহণে নানা অনিয়মের অভিযোগ তুলে ভোট বর্জন করেছেন। এরআগেই ইসলামী আন্দোলন ও বিএনপি ভোট বর্জন করেছেন।

উল্লেখ্য বরিশাল সিটি করপোরেশনে সাত জন মেয়র প্রার্থী রয়েছেন। তাদের মধ্যে বশিরুল হক ঝুনু নামের স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচন থেকে আগেই সরে যান। বাকি ছয়জন মাঠে ছিলেন।



মন্তব্য চালু নেই