মেইন ম্যেনু

বাংলাদেশ নিয়ে স্ট্যাটাস দিলেন জাকারবার্গ

ফেসবুকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) মার্ক জাকারবার্গ বাংলাদেশে মেনিনজাইটিস নামের স্নায়ুরোগের প্রার্দুভাব নিয়ে ফেসবুকে একটি স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তার ওই স্ট্যাটাসে জাকারবার্গের দাতব্য প্রতিষ্ঠান ও বায়োহাবের তৈরি একটু টুল ব্যবহারের প্রশংসা করা হয়েছে।

বুধবার (২৭ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১২টা ২৯ মিনিটে পোস্টটি দেন জাকারবার্গ। এতে তিনি লিখেছেন, সম্প্রতি বাংলাদেশের গবেষকেরা মেনিনজাইটিস প্রার্দুভাবের কারণ খুঁজে বের করতে ‘আইডিসেক’ নামের টুল ব্যবহার করছে। টুলটি তৈরি করেছে ‘চ্যান জাকারবার্গ ইনিশিয়েটিভ’ ও বায়োহাব নামের একটি দল।’

এরপর তিনি লিখেছেন, ‘আইডিসেক’ বা ইনফেকটিয়াশ ডিজিজ সিকোয়েন্সার হচ্ছে মূলত ওপেন সোর্স ও ক্লাউডভিত্তিক টুল যা যে কেউ ইন্টারনেট সংযোগ ব্যবহার করে তা ব্যবহার করতে পারে। এটা বড় ধরনের একটি উদাহরণ যাতে বায়োহাবের প্রযুক্তি ও টুল ব্যবহার করে শিশুদের রোগ প্রতিরোধের উপযোগী নানা ব্যবস্থা নেয়া যায়।

ফেসবুক পোস্টে এ কাজের জন্য গেটস ফাউন্ডেশনকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন জাকারবার্গ। এ ছাড়া আইডিসেক টুলটি বিশ্বের সব স্বাস্থ্যকর্মীর হাতে তুলে দিতে গেটস ফাউন্ডেশন কাজ করছে বলে জানান তিনি।

পোস্টের নিচে জাকারবার্গ আইডিসেক নিয়ে একটি ভিডিও পোস্ট করেছেন। ওই ভিডিওটি ৩ লাখ ৮৮ হাজার ভিউ হয়েছে। এটি তিন হাজারবার শেয়ার হয়েছে। মন্তব্য পড়েছে তিন হাজার। প্রতিক্রিয়া দেখিয়েছেন ২৭ হাজার ফেসবুক ব্যবহারকারীরা।

২০১৬ সালে ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জাকারবার্গের একটি দাতব্য প্রতিষ্ঠানের কার্যক্রম শুরু হয়। মেয়ে ম্যাক্সিমার জন্ম উপলক্ষে ‘চ্যান জাকারবার্গ ইনিশিয়েটিভ’ নামের দাতব্য প্রতিষ্ঠান গড়ার ঘোষণা দেন জাকারবার্গ। এ প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে জাকারবার্গ তার মোট সম্পদের ৯৯ শতাংশ (৪৫ বিলিয়ন মার্কিন ডলার) দাতব্য কাজে ব্যয় করার ঘোষণা দেন।

Scientists in Bangladesh recently determined the cause of a meningitis outbreak using IDseq, a tool created by the Chan Zuckerberg Initiative and Biohub teams to identify and stop infectious diseases before they become pandemics. IDseq (ie Infectious Disease sequencer) is open source and cloud-based, so anyone with an internet connection can use it. This is a great example of the type of technology and tools that Biohub scientists are building to help cure, prevent, or manage all diseases in our children's lifetime. And I'm thankful to the Gates Foundation for working to get IDseq into the hands of healthcare workers around the world.Check out this video to learn more about IDseq, and you can experience the extended version in virtual reality here: https://www.discoveridseq.com/vr

Posted by Mark Zuckerberg on Thursday, 26 September 2019



মন্তব্য চালু নেই