বাজারে আসছে গবেষণাগারে তৈরি মুরগির মাংস

এর আগে পৃথিবীর বিভিন্ন দেশে কৃত্রিম ডিম তৈরি হওয়ার কথা নিশ্চয় শুনেছেন। জানা যায়, যুক্তরাষ্ট্রের ‘হ্যাম্পটন ক্রিক ফুড’ নামের একটি প্রতিষ্ঠান এই ডিম উদ্ভাবন করেছিল। কিন্তু এবারের খবরটি একটু ভিন্ন তবে সম্পর্কিত। এবার বাজারে আসছে গবেষণাগারে তৈরি মুরগির মাংস।

শুনে অবাক হলেও বিশ্বের প্রথম দেশ হিসেবে মার্কিন স্টার্টআপ ‘ইট জাস্ট’-এর গবেষণাগারে কৃত্রিম উপায়ে তৈরি মুরগির মাংস বাজারজাতের অনুমতি দিয়েছে সিঙ্গাপুর।

এদিকে উদ্যোক্তারা মনে করছেন, এ মাংস তৈরিতে প্রাণী হত্যা করা হয় না বলে পরিবেশবাদীদের কাছে এর গ্রহণযোগ্যতা বেশি থাকবে।

ইট জাস্ট জানিয়েছে, তাদের গবেষণাগারে সরাসরি প্রাণীর কোষ থেকে তৈরি করা হচ্ছে উচ্চমানের এ মুরগির মাংস। এটা খেতে সুস্বাদু এবং সম্পূর্ণ নিরাপদ। নাগেট হিসেবে বাজারে পাওয়া যাবে এ মাংস।

প্রতিষ্ঠানটির প্রধান নির্বাহী জস টেটরিক বলেন, প্রাথমিকভাবে সিঙ্গাপুরের বাজারে পাওয়া গেলেও গবেষণাগারে তৈরি মুরগির মাংস পুরো বিশ্বে ছড়িয়ে দিতে কাজ করা হচ্ছে। প্রিমিয়াম মুরগির মাংসের দামে ক্রেতারা বিশেষ এ মাংস কিনতে পারবেন।

তিনি আরও বলেন, বিশ্বজুড়ে মানুষের মধ্যে স্বাস্থ্যসচেতনতা বেড়েছে। একইসাথে পরিবেশ ও প্রাণীর অধিকার রক্ষায় আগ্রহ বাড়তির দিকে রয়েছে। এসব কারণে আগামী দিনগুলোয় গবেষণাগারে তৈরি মাংসের চাহিদা বাড়তির দিকে থাকবে বলে মনে করা হচ্ছে।



মন্তব্য চালু নেই