মেইন ম্যেনু

বিএনপি এখন অস্তিত্ব সংকটে ভুগছে : ওবায়দুল কাদের

বিএনপি এখন অস্তিত্ব সংকটে ভুগছে এবং ভবিষ্যৎ বিপন্ন মনে করে আবোল-তাবোল বলছে বলে মন্তব্য করেছেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

রাজধানীর বঙ্গবন্ধুর এভিনিউয়ে আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যলায়ে বুধবার (৪ আগস্ট) জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে তাঁতী লীগ আয়োজিত আলোচনা সভায় এ মন্তব্য করেন তিনি।

সেতুমন্ত্রী বলেন, ‘এ দল জাতির পিতার খুনের সঙ্গে জড়িত। জাতির পিতার কন্যা মুক্তির সংগ্রামের কান্ডারি শেখ হাসিনাকে হত্যার চক্রান্ত করেছিল গ্রেনেড হামলা করে। এ সত্য জনগণের বিবেকের আদালতে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে। এতে বিএনপি অস্তিত্ব সংকটে ভুগছে এবং ভবিষ্যৎ বিপন্ন মনে করে আবোল-তাবোল বলছে।’

আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক বলেন, ‘খুন আর হত্যার রাজনীতিতে বিএনপির হাত রক্তে রঞ্জিত। তারা বাংলাদেশের ইতিহাস থেকে জাতির পিতাকে মুছে দেয়ার চেষ্টা কম করেনি। ইতিহাস থেকে বঙ্গবন্ধুকে তারা যতই মুছে ফেলতে চেয়েছে তত তারাই নিজেরা মুছে গেছে, সংকুচিত হয়েছে। তারেক রহমান ২১ আগস্টের মাস্টার মাইন্ড আর জিয়াউর রহমান ১৫ আগস্টের মাস্টার মাইন্ড।’

এ সময় বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান তারেক রহমানের সমালোচনা করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন, ‘বিএনপি নেতা তারেক রহমান টেমস নদীর তীরে বসে কাকে নাকি জাতীয়তাবাদী জাতির পিতা বানাচ্ছে। কে কী হবে সেটি সাধারণ মানুষ ঠিক করবে। তাদের এক নেতা টেমস নদীর পারে বসে অনেক কিছু বলেন।’

কাদের বলেন, ‘তাঁতী লীগসহ সবার উদ্দেশ্যে বলছি, তোমরা বেকার থেকে রাজনীতি করলে মানুষ বলবে নিশ্চয় চাঁদাবাজি করো। তাই কাজ কর আর জনসেবার জন্য রাজনীতি কর। রাজনীতি কোনো পেশা নয়, জনসেবার কমিটমেন্ট। বঙ্গবন্ধুর নাম ব্যবহার করে যারা রাজনীতির ব্যবসা করে তাদের প্রশ্রয় দেয়া যাবে না।’

তাঁতী লীগের সভাপতি আলহাজ ইঞ্জিনিয়ার মো. শওকত আলীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের দফতর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ, তাঁতী লীগের সাধারণ সম্পাদক খগেন্দ্র চন্দ্র দেবনাথ, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক শাহে আলম মুরাদ, তাঁতী লীগের মহানগর নেতা সুদীপ চন্দ্র হালদার প্রমুখ।



মন্তব্য চালু নেই